ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

 

11045312_10155382465120601_4152728713160192368_n
এখনো অনেক পথ বাকি, বিজয় উল্লাস যেন আমাদের ক্লান্ত না করে ।
১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস আমাদের জাতীয় জীবনের একটি আনন্দঘন দিন ।
এদিন আমরা হানাদার বাহিনীর কবল থেকে মুক্তি পেয়েছিলাম । এ মুক্তির আনন্দে ফেটে পড়েছিলো দেশবাসী ।
ঠিক সেদিনের মতো গতকাল সোমবার ৯মার্চ বিশ্বকাপে টাইগারদের অবিস্মরণীয় বিজয়ের বার্তা আমাদের মাঝে যোগ করেছে আরেকটি আনন্দ ।
উল্লাসে ফেটে পড়েন বাংলাদেশের এমপিরা। করতালিতে মুখর হয়ে ওঠে গোটা সংসদ অধিবেশন কক্ষ। এ সময় সরকার ও বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা টেবিল চাপড়িয়ে, একে অপরের সঙ্গে কোলাকুলি করে বিজয়ের আনন্দ ভাগ করে নেন।

দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে নারী- পুরুষ , আবাল বৃদ্ধ বনিতা সকলের মাঝেই আনন্দের ঝর্ণা ধারা বইছে ।
১৯৭১ সালের ২৬ শে মার্চ বঙ্গবন্ধু এ দেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন । শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধ । দীর্ঘ নয় মাস চলে এ যুদ্ধ । অবশেষে হানাদার বাহিনী পরাজিত হয় ।
আমরা বিজয়ের অপার আনন্দ উপভোগ করি ঠিকই, কিন্তু আমারা কি সকলে মিলে একমত হয়ে দেশের উন্নয়নে নিজেদের বিলিয়ে দেই । আমার উত্তর না । স্বাধীনতার ঘোষনা থেকে শুরু করে ইতিহাসের সকল ক্ষেত্রেই দ্বিমত আমাদের দেশে । এখানে ইতিহাসেও রয়েছে পক্ষপাত । যা নতুন প্রজন্মকে দ্বিধা দ্বন্দের সৃষ্টি করে । বিজয়ের আনন্দ আমাদের করেছে ক্লান্ত ।
দেশের এমন সংকটময় মুহুর্তে আরেকটি উল্লাসের ইতিহাস সৃষ্টি করলেন বাংলার ক্রিকেটের দামাল ছেলেরা । এই টাইগাররা একদিনের জন্য হলেও সকল দল , মত, বর্ণ বৈশ্যম্যের অবসান ঘটিয়েছেন আনন্দ উল্লাস উপহার দিয়ে ।

এই উল্লাসের ধারাবাহিকতা বজায় রাখবেন এই হোক আমাদের প্রত্যাশা ।
এখনো অনেক পথ বাকি বিজয় উল্লাস যেন আমাদের ক্লান্ত না করে বসে ।