ক্যাটেগরিঃ কৃষি

foley fish
ছবি: বাজারে তোলা ফলি মাছ , দেখা মেলে কালে ভদ্রে

প্রাকৃতিক জননাধার দাম ধ্বংস, বৈশ্বিক প্রাকৃতিক বিপর্যয়, নদীভাঙ্গন- ভরাট, ঘন বাঁধ তৈরি, বন্যা, আবহাওয়া পরিবর্তন, নদ- নদীর গতিপথ পরিবর্তন, হাওর- বাঁওড়, খাল -বিল বরাট, মাটি দূষণ প্রভৃতি কারণে ময়মনসিংহসহ সারাদেশে ফলি মাছ হারিয়ে যাচ্ছে।

দেশিয় প্রজাতির এই মাছ শৈবাল, পোকামাকড়, কাঁদা, বালি, ছোট মাছ ইত্যাদি খেয়ে জীবন ধারণ করে থাকে। বর্ষাকালে একটি মা মাছ প্রায় তিন হাজার ডিম দিয়ে থাকে । ছোট কাঁটাযুক্ত ফলি মাছের ভাজি ও কোপ্তার স্বাদ ভোজন রসিক বাঙ্গলীদের জিভে দীর্ঘদিন লালিত থাকে।

জানা যায়, ১৯৯৯ সালের এক সার্ভে রিপোর্টে আইইউসিএন ( ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর দি কনজারভেশন অফ ন্যাচার ) ফলি মাছকে বিলুপ্ত প্রায় ঘোষনা করেছে । ময়মনসিংহে এখন ফলি মাছের আকাল চলছে । বাজারে দেখা মেলে কালে ভদ্রে।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মৎস্য বিজ্ঞান বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মো: ইদ্রিস মিয়া জানান, সুস্বাদু ও পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ এই মাছটি গ্রাম বাংলায় এক সময় প্রচুর পাওয়া যেতো । প্রাকৃতিকভাবে বেড়ে উঠা এই মাছ উপরোল্লিখিত কারণে এখন আর আগের মত দেখা মেলে না । তার মতে, কৃত্রিম প্রজননের মাধ্যমে ফলি মাছ টিকিয়ে রাখা সম্ভব।