ক্যাটেগরিঃ শিল্প-সংস্কৃতি

SAM_2117
ময়মনসিংহে তানিয়ার একক নৃত্যনুষ্ঠান। পশ্চিমবঙ্গের বিশিষ্ট নৃত্য শিল্পী। যার নাম তানিয়া চক্রবতী। জেলা প্রশাসন ও নোভা ডায়াগনোষ্টিক সেন্টারের সহযোগিতায় ও সন্দীপন সাংস্কৃতিক সংস্থার মোঃ মাহবুবু হোসেন শরীফ এর পরিচালনায় জেলা শিল্পী কলা একাডেমিতে গত ২৯শে মে সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হলো ঘরোয়া সঙ্গীত সন্ধ্যা ও তানিয়া চক্রবতীর একক নৃত্যানুষ্ঠান।

সন্ধ্যা সাতটায় অনুষ্ঠানটি শুরু হওয়া সিডিউল থাকিলেও জেলা শিল্পকলার একাডেমির আসন গুলো আগে বাগেই পুরিপুণ হয়ে যায়। যথাযথি সময়েই শুরু হয় একক তানিয়া চক্রবতীর নৃত্যানুষ্ঠান।

কিবোর্ড, হারমনি, তবলা, বাঁশির সুরের মুর্চ্ছনায় উপস্থিত দশকরা ছিল মুগ্ন। বলাচলে তানিয়ার চক্রবতীর নৃত্যানুষ্ঠানটি ছিল বেশ চমকপ্রদ।

অনুষ্ঠানটি প্রাণ উপভোগ করেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব এম.এ.এম সিদ্দিক, ময়মনসিংহ জেলার সুযোর্গ্য জেলা প্রশাসক মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকী, স্থানীয় সরকারে উপ-পরিচালক মোঃ নুরে আলম, এডিসি শারমিন জাহান, মোঃ হারুন অর রশিদ সহ সরকারি বেসরকারি উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় এমন একটি তাকলাগানো নৃত্যানুষ্ঠান দেখে পুরো একাডেমির আসনের দর্শকরা মুগ্নহয়ে পড়েন। পরিশেষে দর্শকবৃন্দ আগামীতে তানিয়ার নৃত্যার তালিম ও ব্যাক্তিগত জীবন আরো সুন্দরময় হোক এ প্রত্যাশা কামনা করেন। অনুষ্ঠানে শেষ প্রান্তে জেলা প্রশাসনের পক্ষথেকে কবি, সংগীত পিপাসু, জেলা প্রশাসক মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকী এক ব্যক্তবে পশ্চিমবঙ্গের বিশিষ্ট নৃত্য শিল্পী তানিয়া চক্রবতী ও আয়োজক সন্দীপন সাংস্কৃতিক সাংস্থাকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। পাশাপাশি সকলের সুস্বাস্থ্য কামনা করেন।

তানিয়া চক্রবর্তী ৫বছর বয়সে রবীন্দ্র ও কথক নৃত্যে তালিম শুরু এবং ১৫ বছর একই ঘরানার নৃত্যচর্চা করেছেন। পরবর্তীতে তিনি বিশ্বভাতরতী বিশ্ববিদ্যালয়, শান্তিনিকেতন থেকে মনিপুরী নৃত্যে অনার্স এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন। বর্তমানে তিনি উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে মনিপুরী নৃত্যের উপর ড. সুমিত বসু’র তত্ত্বাবধানে পিএইচডি পর্যায়ে গবেষণা কর্মে রত আছেন। এছাড়া তিনি বঙ্গীয় সংগীত পরিষদ থেকে রবীন্দ্রনৃত্য এবং প্রাচীন কলাকেন্দ্র, চণ্ডিগড় থেকে কথকনৃত্যে ডিপ্লোমা অর্জন করেছেন। তিনি আই.সি.সি.আর, ভারত কর্তৃক মনোনীত নৃত্যাশিল্পী হিসেবে নেপাল ও ভূটান এবার বাংলাদেশ সফর করেন।

তাঁর নৃত্যগুরুদের মধ্যে রয়েছেন, হেমন্ত কুমার, কে.সুনীতা দেবী, কে.জিতেন সিং। বর্তমানে তানিয়া চক্রবর্তী গুরু দেবযানী চালিহা-এর অধীনে মনিপুরী নৃত্যের উপর উচ্চতর প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন।