ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

ফেসবুক বন্ধ থাকায় ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা পৌরসভা নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যাঘাত ঘটছে বলে জানান প্রার্থীরা। কবে খুলবে ফেসবুক এই প্রতিক্ষার প্রহর গুনছেন তারা।

উপজেলা নির্বাচন অফিস জানায়, আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে শহীদুল ইসলাম শহীদ (বিএনপি), আব্দুল হাই আকন্দ (আওয়ামী লীগ), আতাউর রহমান লেলিন (জাতীয় পার্টি), শরিফুল ইসলাম বিপ্লব (জাসদ), দেবাশীষ ঘোষ বাপ্পী (স্বতন্ত্র) ও মোর্শেদুজ্জামান খান (স্বতন্ত্র) এবং সংরক্ষিত নারী আসনে ১২ জন, কাউন্সিলর ৩৫জনসহ মোট ৪৭ জন কাউন্সিলর প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে বিএনপির শহীদুল ইসলাম শহীদ, জাসদের শরিফুল ইসলাম বিপ্লব ও স্বতন্ত্র মোর্শেদুজ্জামানের ফেইসবুকে কোনো আইডি নেই। আওয়ামী লীগের আব্দুল হাই আকন্দ, স্বতন্ত্র দেবাশীষ ঘোষ বাপ্পীর ফেসবুকে আইডি রয়েছে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী দেবাশীষ ঘোষ বাপ্পী ফেসবুকে খুবই জনপ্রিয়। প্রোফাইল ও কভার ছবিতে পেয়েছেন হাজারের বেশি লাইক ও কমেন্ট। নির্বাচন সংক্রান্ত নিজের ও বন্ধুদের ফেসবুক ওয়ালের পোস্টে ব্যাপক জনপ্রিয়তা নিদর্শন হিসাবে বাপ্পী পেয়েছেন অসংখ্য লাইক ও কমেন্ট। ফেসবুক বন্ধ হওয়ার আগের দিন পর্যন্ত পৌর নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমাদানকারী কয়েকজন মেয়র, অনেক কাউন্সিলর, সংরক্ষিত নারী আসনের কাউন্সিলর প্রার্থী তাদের এবং তাদের বন্ধুদের ওয়ালে করা পোস্টে পেয়েছেন ব্যাপক সমর্থন। ওয়ালে নিজের ছবি ও বক্তব্য তুলে ধরে পেয়েছেন অসংখ্য লাইক কমেন্ট।

অনেকে ফেসবুকে ব্যাপক জনপ্রিয় ভেবে পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিলর হিসাবে প্রার্থী হয়েছেন। ফেসবুক বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তারা এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছেন।

ফেসবুকে জনপ্রিয় এমন প্রার্থীরা বলেন, ‘ফেসবুক কবে চালু হবে? এই প্রতিক্ষার প্রহর গুনছি। ফেসবুক খুলে দেয়া হলে নিজের প্রতিশ্রুতি ওয়ালে তুলে ধরব।’