ক্যাটেগরিঃ স্বাধিকার চেতনা

ময়মনসিংহে
আজ শুক্রবার ময়মনসিংহে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, ময়মনসিংহ জেলা ইউনিট কমান্ড এর নবনির্মিত মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন উদ্ভোধন করেন মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এম.পি।এসময় ছিলেন,ধর্মমন্ত্রী আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মতিউর রহমান ।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, যুদ্ধাপরাধীর সন্তানদের সরকারি চাকরি দেয়া হবে না। বর্তমানে যারা চাকরিতে আছেন তাদের বরখাস্ত করা হবে এমন ঘোষণা দিয়ে তিনি বলেন, এদের সন্তানদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগও দেয়া হবে না। ময়মনসিংহের ত্রিশালে গোহাটা মাঠে মুক্তিযোদ্ধা পুনর্বাসন সোসাইটি আয়োজিত সমাবেশে মন্ত্রী আজ শুক্রবার বিকেলে এসব কথা বলেন। এর আগে নবনির্মিত মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমপ্লেক্স পরিদর্শন করেন তিনি। মোজাম্মেল হক বলেন, ‘যুদ্ধাপরাধীদের শুধু সম্পদ বাজেয়াপ্ত করলেই চলবে না, তাদের সন্তানদের সরকারি কোনো চাকরি দেয়া হবে না। চাকরিরতদের বরখাস্ত করা হবে। এমনকি তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগও দেয়া হবে না।’

জেলা মুক্তিযোদ্ধা পুনর্বাসন সোসাইটির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা নূরুল মোমেনের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন সাবেক সংসদ সদস্য রুহুল আমীন মাদানী, ত্রিশাল পৌরসভার মেয়র এ বি এম আনিছুজ্জামান, ত্রিশাল উপজেলা পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এন এম শোভা মিয়া আকন্দ, ভালুকা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কাজীমুদ্দিন ধনু, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নবী নেওয়াজ সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আনোয়ার হোসেন আকন্দ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক ফজলে রাব্বী।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা নিয়ে কটাক্ষকারীদের বিচারের জন্য অতিদ্রুত আইন করা হবে। জামায়াতে ইসলামী মানবতাবিরোধী দল। তাদের রাজনীতি করার কোনো অধিকার বাংলার মাটিতে নেই। মানবতাবিরোধীদের সব সম্পদ বাজেয়াপ্ত করা হবে। যুদ্ধাপরাধীদের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা ও ভোট প্রদানের অধিকার থাকবে না বলেও জানান তিনি।