ক্যাটেগরিঃ দিনলিপি

ময়মনসিংহে মুক্তাগাছায় পরিবারের লোকজনের সাথে হৈ হুল্লোর , বন্ধু বান্ধবদের সাথে চুকিয়ে আড্ডা , নতুন পোষাকে ঘুরে প্রাকৃতিক পরিবেশে বেড়ানো , সিনেমা দেখা , ইত্যাদি ছিলো ঈদ আনন্দ ।

ক্রমে ইন্টারনেটের বদৌলতে এসেছে ফেসবুক । এখন ঈদ আনন্দ বিনোদনের প্রধান আকর্ষণ ফেসবুকে সেলফি ।
01
জনপ্রতিনিধি, সরকারি বেসরকারি কর্মকর্তা- কর্মচারি, ব্যবসায়ী, ছাত্র- ছাত্রী তথা ছেলে বুড়ো সকলেই ঈদ উপলক্ষে এখন ফেসবুকে নিজের ছবি আপলোড দিয়ে সেলফিতে ব্যস্ত ।

ঈদ এলে ফেসবুকের এমন কোন ব্যবহারকারী নেই যিনি তার ওয়ালে দেননি নতুন জামা কাপড় পড়ে সেলফি ।
02
গতকাল বৃহস্পতিবার ছিলো ঈদের দিন । ঈদের নামজ শেষে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ফেসবুকে নিজের ওয়ালে সেলফি দিয়েছেন মুক্তাগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জুলকার নায়ন ।
03
মুক্তাগাছা পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র সাহেদ সারোয়ার উজ্জল , ঈদের নামাজ শেষে ফেসবুক ওয়ালে সেলফি দিয়েছেন প্রবাসী ভাই ভাতিজি ছেলে মেয়েকে নিয়ে ।
04
ঈদের পরদিন মুক্তাগাছায় একটি অভিজাত পরিবারের মেয়ের বিয়ে । বিয়ে অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন পাত্রির শিক্ষক ও শিক্ষকের পুত্র । কনেকে নিয়ে শিক্ষক তার পুত্রকে সাথে নিয়ে ফেসবুক ওয়ালে সেলফি দিয়েছেন ।
06
বাদ দেননি ঐ বিয়ের পাত্র পক্ষ । ময়মনসিংহ শহর থেকে আসা পাত্র তার সুন্দর ছবি উঠিয়ে সেলফি দিতে সাথে করে নিয়ে এসেছেন বন্ধু বড় মাপের ফটো সাংবাদিক ।

গ্রামের ছেলে বুড়োর ঈদ আনন্দ এখন ফেসবুক ওয়ালে সেলফি । নিজের ফেসবুক একাউন্ট নেই তাতে কি । অন্যের ওয়ালে তো দেখা যাবে নিজের ছবি । তাই একাউন্টধারীদের সিলফিতে যোগ দিচ্ছেন তারাও ।
abu,,
সেলফিতে বাদ যাননি স্থানীয় সাংবাদিকও । নিজের মেয়েকে নিয়ে ঘুরে ঘুরে ছবি তুলে ফেসবুক ওয়ালে বাবা মেয়ের সেলফি ।
খোজ খবর নিয়ে জানা গেছে , মুক্তাগাছায় ২ হাজারেরও অধিক স্থায়ী ও অস্থায়ী বাসিন্দা যারা ফেসবুক ব্যবহার করেন , তাদের ওয়ালে এখন একটিই দৃশ্য শোভা পাচ্ছে, নিজের , পরিবার- পরিজনদের , আত্নীয়- স্বজন ও প্রতিবেশিদের নিয়ে সেলফি ।
ঈদের আনন্দ এখন ফেসবুকে ওয়ালে সেলফি নির্ভর ।