ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

 

’অতীতকে জানবো আগামীকে গড়বো” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বৃহস্পতিবার ময়মনসিংহে মুক্তাগাছায় আর্ন্তজাতিক সাক্ষরতা দিবস পালিত হয় । এ উপলক্ষে মুক্তাগাছা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা দপ্তর আয়োজিত বনার্ঢ্য র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত । অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা ‍নির্বাহী কর্মকর্তা জুলকার নায় ।
tt

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমানের সংবাদ সন্মেলন সূত্রে জানা যায়, দেশের ৬৪ জেলায় ১৫-৪৫ বছর বয়সী ৪৫ লাখ নিরক্ষরকে সাক্ষরতা ও দক্ষতা ভিত্তিক কারিগরি প্রশিক্ষণ দেবে সরকার।

মন্ত্রী জানান, নিরক্ষরতা দূরীকরণের জন্য উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর মাধ্যমে সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে ‘মৌলিক সাক্ষরতা’ প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার।

তিনি জানান, এ বছর বিশ্বব্যাপী আর্ন্তজাতিক সাক্ষরতা দিবসের সুবর্ণ জয়ন্তী পালন করা হচ্ছে। এবারের প্রতিপাদ্য ‘অতীতকে জানব, আগামীকে গড়ব’। প্রযুক্তিনির্ভর এ বিশ্বে সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে সাক্ষরতার কোনো বিকল্প নেই। দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন এবং গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে সুশিক্ষিত ও দক্ষ মানব সম্পদ অপরিহার্য।

মোস্তাফিজুর রহমান জানান, স্বাধীন বাংলাদেশে ১৯৭২ সালে প্রথমবারের মতো সাক্ষরতা দিবস উদযাপিত হয়। তারই ধারাবাহিকতায় সরকার সাক্ষরতা বিস্তারে ব্যাপক উদ্যোগ গ্রহণের পাশাপাশি প্রতি বছর আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে পালন করে আসছে। সুবর্ণ জয়ন্তী হওয়ায় অন্যান্য বছরের তুলনায় এবারের আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস খুবই গুরুত্বপূর্ণ।