ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

ময়মনসিংহ শহর ও উপজেলার হাটগুলিতে এবার বিলম্বে হলেও জমে উঠছে। হাটগুলিতে ক্রেতা বিক্রেতাদের উপস্থিতি বেড়েছে। আর মাত্র একদিন বাদেই ঈদ । ইতিমধ্যে পশু বিক্রির ধুম পড়েছে ।

গতকাল শনিবার বিকালে ময়মনসিংহ শহরের সার্কিট হাউজ মাঠে একটি গরুর দাম ৮ লাখ টাকা হাঁকা হয়েছে । যদিও এই টাকায় গরুটি বিক্রি হয়নি । তবে, বিক্রেতা আশা করছেন, আজ কালের মধ্যে গরুটি এই দামেই বিক্রি করা যাবে । অপরদিকে ক্রেতারা বলছেন, দাম কমবে । গরুর দাম কমা বাড়ার দোলাচলে হাটে পাইকার, ক্রেতা, ইজারাদাররা ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন ।
mymensinghhats-animal-sacrifice

সরেজমিনে ময়মনসিংহ শহর ও উপজেলার হাটগুলি ঘুরে দেখা গেলো, হাটগুলিতে উঠেছে প্রচুর গরু । কৃত্রিম সংকট না থাকায় দাম অসহনীয় হবে না ক্রেতারা মনে করছেন ।

তবে পাইকারদের কেউ কেউ লোকসানের আশঙ্কার কথা বলেছেন। অনেকের মধ্যে গতবারের ভয়ও কাজ করছে। কারণ, গতবার গরুর দাম হঠাৎ কমে গিয়েছিল। কয়েকজন পাইকার জানান, এবার ভারত থেকে অনেক গরু আমদানি হয়েছে। হােট যার প্রভাব পড়েছে। ময়মনসিংহ শহরের সার্কিট হাউজ, কেওয়াটখালী, আকুয়া, মাসকান্দা এবং উপজেলারগুলির মুক্তাগাছা , ভালুকা, ত্রিশাল, ফুলবাড়ীয়া, গৌরীপুর, নান্দাইল, ঈশ্বরগঞ্জ, তারাকান্দা, গফরগাঁও,ধোবাউড়ায় হাটের চিত্র একই রকম বলে জানিয়েছেন ক্রেতা বিক্রেতারা ।

ময়মনসিংহ পৌর এলাকার এবার মোট হাট বসেছে ১৭টি। হাটগুলিতে ক্রেতারা দাম কমার আর বিক্রিতারা দাম বাড়ার প্রতিক্ষায় রয়েছেন। ঐ হাটে গরু নিয়ে অবস্থানরত পাইকাররা বলেন, এখন পর্যন্ত ক্রেতারা দাম কম বলছেন। তবে তাদের আশা, আজ এবং আগামীকাল ভালো দাম পাবেন তারা। ক্রেতারা বলছেন, দাম আরো কমবে এই প্রতিক্ষায় আছি ।