ক্যাটেগরিঃ ধর্ম বিষয়ক

সোমবার দুর্গাপূজার মহা নবমীর দিন সকাল থেকেই ময়মনসিংহে জেলা উপজেলায় বৃষ্টি । সন্ধ্যার পর থেকে বৃষ্টি বেড়ে মণ্ডপের রাস্তায় জমে গেছে পানি। বৃষ্টি উপেক্ষা করেই পূজা-পাগল ভক্ত আর দর্শকদের ভিড় দেখা গেছে।
puja-1
দিনে লোক সমাগম কম ঘটলেও সন্ধ্যার পর থেকে বৃষ্টি মাথায় নিয়েই শুরু হয়ে যায় মণ্ডপে মণ্ডপে লাইন। প্যাক-কাদায় একাকার রাস্তায় প্রতিমা দেখতে বেরোনো উৎসুকদের জেদে সেই সব অস্বস্তিই কার্যত ধুয়েমুছে সাফ।

ময়মনসিংহ শহরের বিভিন্ন মণ্ডপ এলাকায় সন্ধ্যের পর দেখলে কে বলবে, দুপুরেই সেখানে বৃষ্টি নেমেছিল আকাশ কাঁপিয়ে! শাখারি বাজার মোড় থেকে দফায় দফায় স্বদেশীবাজার সর্বজনীনের দিকে তখন আছড়ে পড়ছিল জনস্রোত। দুর্গাবাড়ি, শিববাড়ি, স্বদেশীবাজার, বড় বাজার, আঠারবাড়ি বিল্ডিং ছোটবাজার মণ্ডপ দেখে ভিড়ের একটা অংশ চলে গেছে স্টেশনরোডের দিকে।
puja2
পুরোহিত পাড়া ব্রাহ্মপল্লী মণ্ডপ থেকে বেরিয়েই গৃহিনী তাদের সঙ্গীদের বললেন, পেক কাদা যতই লাগুক, বাড়ি ফেরার আগে ধোওয়ার প্রশ্ন নেই। দুর্গাবাড়ি মন্ডপে সন্ধ্যে থেকেই জমে উঠেছে নানা বয়সিদের ভিড়, আড্ডা। আয়োজকরা ভিড় দেখে উচ্ছ্বসিত। বৃষ্টির ভয় সরিয়ে সন্ধ্যে থেকেই হুহু করে লোক ঢুকছে। শহরের শিববাড়ি মন্দিরে মহিলাদের আয়োজনে মন্ডপ প্রতি বারের মতো এ বারও ভিড় টানার লড়াইয়ে সামনের সারিতে। লাইন পড়েছে প্রতিটি মণ্ডপেই।

মণ্ডপগুলিতে মোতায়েন আনসারকর্মীরা ভিড়ে নাজেহাল। ভিড় সামলানোর বন্দোবস্ত তদারক করতে রাতে সেখানে যান জেলা পুলিশ সৈয়দ নূরুল ইসলাম । ভিড় টানার লড়াইয়ে মান রেখেছে শহরের বেশির ভাগ পূজা মন্ডপই। দুপুরের পর থেকেই অনেকেই প্রতিমা দেখতে পৌঁছে গেছেন এই এলাকায়। মণ্ডপের অভিনবত্বে প্রায় সকল মণ্ডপই এবার তাক লাগিয়েছে। ভিড় দেখে তৃপ্ত পৌরসভার মেয়র ইকরামুল হক টিটু।
puja3
সোমবার সকাল থেকে ময়মনসিংহ সদর এবং উপজেলাগুলিতে হামলা চালিয়েছে বৃষ্টি। এ দিন দুপুরে দুর্যোগ দেখে মাথায় হাত দিয়ে বসে পড়েছিলেন মুক্তাগাছার লাঙ্গুলিয়া গ্রামের এক পুরোহিত। বললেন, এমন বৃষ্টি শুরু হলে সব আয়োজনই পণ্ড হবে। কাউডাঙ্গার চরের এক আয়োজক তো রাস্তায় পানি জমলে কী ভাবে সামাল দেবেন, তার হিসেব কষতে লেগেছিলেন। অনেক আয়োজক মণ্ডপের চত্বরে কাদা ঠেকাতে কাঠের গুড়ারও অর্ডার দিয়েছেন। তাদের কপালে পড়ে যায় চিন্তার ভাঁজ। দর্শকরা বললেন, দুর্গোৎসবের সময় বৃষ্টির হামলা নতুন নয়। তাই বলে পূজোর আনন্দ উপভোগ করবো না?