ক্যাটেগরিঃ জনজীবন

 

ময়মনসিংহে নান্দাইলে উপজেলার বাঁশাটি গ্রাম। এই গ্রামে তিনদিন আগে রাতে একটি অটো টেম্পো থেকে অসুস্থ এক বৃদ্ধাকে ফেলে দেয়া হয়। তা দেখে পথচলতি মানুষ ঠায় দাঁড়িয়ে পড়েন রাস্তায়।
mymensingh-childrens-mother-escaped-sick-leave
টেম্পো থেকে জোর করে বছর পয়ষট্রি ওই বৃদ্ধাকে নামিয়ে দেওয়া হয়। এরপরেই টেম্পুটি নিয়ে পালিয়ে যায় আগন্তুকেরা। আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় কাঁদতে দেখে বৃদ্ধাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। তিনদন যাবৎ রাস্তায় পড়ে থাকা বৃদ্ধার শরীরের পোকা বাসা বেধেছে ।

তার পা এবং কোমরের মাংস খেয়ে হাড্ডি বের করে ফেলেছে পোকারা। এই ঘটনায় ক্ষোভে ফেটে পড়েন এলাকার মানুষ। পুলিশ ও স্থানীয় সাংবাদিকরা জানিয়েছে, ওই বৃদ্ধার নাম ঠগর রানী সাহা, স্বামী, নিতাই সাহা। তিনি হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা। তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ অসুস্থ হয়ে বাড়িতেই ছিলেন । বিনা চিকিৎসায় ধুকে ধুকে মৃত্যুপথযাত্রী । সন্তানরা রাতের আঁধারে এখানে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। তাঁকে বাড়ি থেকে বার করে দেয় বলে অভিযোগ।

একটি টেম্পুতে তুলে নান্দাইলে পাঠিয়ে দেওয়া হয় বলে ওই বৃদ্ধা পুলিশকে জানিয়েছেন। স্থানীয়রা ওই বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে নান্দাইল হাসপাতালে ভর্তি করে।নান্দাইল হাসপাতালের চিকিৎসক তার অবস্থার অবনতি দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দিয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, কেন একজন বৃদ্ধাকে রাস্তার পাশে ফেলে রাখা হল? এ বিষয়ে জানতে মহিলার আত্নীয়-স্বজনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে। তারপরেই আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বৃদ্ধার সন্তানদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান স্থানীয় মানুষজন।

(২০-১০-২০১৬)