ক্যাটেগরিঃ প্রকৃতি-পরিবেশ

ময়মনসিংহে জেলার সর্বত্র শিকারীদের বিরুদ্ধে ফাঁদ পেতে বক ধরার অভিযোগ রয়েছে । শিকারীদের হাতে ধৃত বক প্রকাশ্যে বাজারে বিক্রি হচ্ছে । প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দেখেও না দেখার ভান করছে ।

mymensinghegret-bird-hunting-1
অভিযোগে প্রকাশ, জেলার ময়মনসিংহ সদর, মুক্তাগাছা, গৌরীপুর, ঈশ্বরগঞ্জে, নান্দাইল, হালুয়াঘাট, ফুলপুর, ফুলবাড়ীয়া, ত্রিশাল, তারাকান্দা, গফরগাঁও ও ভালুকা উপজেলায় বিভিন্ন গ্রামে সিন্ডিকেট বক শিকারী গড়ে উঠেছে । বক শিকার তাদের প্রতিদিনের রুটিনে পরিণত হয়েছে ।
mymensinghegret-bird-hunting-2
গ্রামের বিল,নদী-নালা ও ধানী জমিতে বক শিকারের তৎপরতা বেশি দেখা গেছে। বিলপাড়ের উঁচু গাছবিহীন স্থান ও বিস্তীর্ণ ধানি জমিতে বক ধরার ফাঁদ পাতে শিকারীরা। শিকারীরা তাদের ফাঁদে প্রতিদিন ১শ’ থেকে ৫শ’টি পর্যন্ত বক ধরছে।

mymensinghegret-bird-hunting-5
বক শিকারী সূত্রে জানা গেছে, অনেক মানুষ মনে করেন, বকের মাংস খেলে বাতসহ শরীরের বিভিন্ন ব্যথা দূর হয়। তাই অনেকে বক ধরার আগেই কেনার জন্য টাকা দেন।

শিকারিরা ফাঁদ পেতে পোষা বক দিয়ে বক শিকার করেন। বক শিকারে সরকারি নিষেধাজ্ঞা আছে এটা জেনেও কেন বক শিকার করেন , জানতে চাইলে শিকারীরা বলেন, আজ পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট বিভাগের কেউ আমাদের জানায়নি । তাছাড়া বক শিকার না করলে আমাদের রুটি- রুজি চলবে কিভাবে । উল্টো এমন প্রশ্ন করেন তারা ।
mymensinghegret-bird-hunting-3
সরেজমিনে দেখা গেছে, শিকারীদের ফাঁদের আশপাশে বসার জায়গা না থাকায় বাধ্য হয়ে তাদের পাতা ফাঁদে ধরা দেয় বক। এই ফাঁদ পাতা হয়েছে চিকন বাঁশের বাঁকানো তিনটি খুঁটি তিন কোনাকৃতি করে পোঁতা। এক পাশ খোলা রেখে প্রত্যেকটি খুঁটির সঙ্গে বাঁশের কঞ্চির টানা দিয়ে ৫/৬ ফুট সমান উচ্চতায় একটি ঘর তৈরি করা হয়েছে।

ওই ঘরের চারপাশ সবুজ পাতা দিয়ে ঢেকে দেয়া হয়েছে। ওপরের ফাঁকা অংশটি বেত দিয়ে ডেকে রাখা হয়েছে । দিয়ে ঢেকে এই ফাঁদ দূর থেকে দেখতে গাছের মতো মনে হয়। এই ফাঁদের কাঠামোর পাশে একটি খুঁটি পুঁতে তাতে পায়ে রশি বাঁধা শিকারির পোষা বকটি রাখা হয়েছে। আকাশে কোনো বক উড়তে দেখলে পোষা বকটি উড়ে যায়।

ফাঁদের ওই কাঠামোর ভেতর থেকে শিকারি পোষা বকের রশি ধরে টানতে থাকেন। বকটি তখন শব্দ করে ডেকে ওঠে। অনেক সময় শিকারি নিজেও বকের শব্দ করে ডাকেন। উড়ন্ত বকগুলো ওই শব্দ শুনে কাছে আসে। আশপাশে বসার জায়গা না থাকায় ওই ফাঁদে বসামাত্রই ভেতরে অবস্থান করা শিকারি হাত বাড়িয়ে বকের পা ধরে টেনে নেন।
mymensinghegret-bird-hunting-4

এভাবে প্রতিদিন শিকারীপ্রতি ৫ থেকে ১০টি বক ধরে থাকেন । বাজারে আকারভেদে প্রতিটি বক ১শ’ টাকা থেকে ৩শ’ টাকায় বিক্রি হয় । ময়মনসিংহবাসী অবৈধ বক শিকার বন্ধ করতে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন ।