ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

গত ৭ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের চলমান আন্দোলন নিয়ে লিখেছিলাম। কিছু পরামর্শও দিয়েছিলাম। লাগাতার কর্মসূচীর জন্যও আহ্বান জানিয়েছিলাম।

এরই মধ্যে আমাদের অর্থমন্ত্রী মি. মাল এমন একটা কথা বলে বসলেন যা একরকম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কাটা গায়ে লবনের চিটকার মত হয়ে গেল বৈকি!!

৮ তারিখ কেন্দ্র ঘোষিত কর্মবিরতি পালনের দিনই ঘটে গিয়েছিল সেই ঘটনা। এর মাধ্যমেই দেখা গেল দেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত শিক্ষকবৃন্দ একই প্লাট ফর্মে এসে আন্দোলন চাঙ্গা করে ফেলেছেন। শিক্ষকরা মি. মালের কথার প্রতিবাদ জানিয়ে কর্মবিরতি কর্মসূচীতে গিয়েছেন। আবার মি. মালকে অতি শীগ্রেই ক্ষমা চাওয়ার কথাও জানিয়ে দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা।

৯ সেপ্টেম্বর  নিউজে দেখলাম ১৪ দলের পক্ষ থেকে সংবাদ ব্রিফিং করে স্বতন্ত্র বেতন কাঠামোসহ বিভিন্ন দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। প্রেস ব্রিফিংয়ে ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম এ আহ্বান জানান। আমরা এটাও জানি যে, মি. নাসিম হলেন বর্তমান সরকারের একজন বটগাছ তুল্য মন্ত্রী। তিনি সরকারের একজন বিশেষ দায়িত্বশীল। অামরা সবাই তার এই বক্তব্যে কিছু একটা ম্যাসেজ পেলাম বৈকি!! সরকারের টনক নড়ছে বলে মনে হচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত শিক্ষকবৃন্দ, আপনাদের বিজয়ের চাঁদ অল্প কিছু দিনের মধ্যেই উদিত হবে আমি আশা করছি। আপনারা আপনাদের অহিংশ আন্দোলন চালিয়ে যান। বৃহত্তর স্বার্থে আমরা সামান্য ত্যাগ করার জন্য উদগ্রিভ আছি। বিজয় আপনাদের হবেই, সরকারের কিছু কর্মকান্ড সেটিই ইঙ্গিত করছে।

মো. আরিফুর রহমান

এম.এস.এস, সেশন : ২০১২-১৩

লোক প্রশাসন বিভাগ, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়।