ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

((বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম))
শুরুতেই সবাইকে সালাম ও বিজয়ের মাসে বিপ্লবী শুভেচ্ছা।আজকের যে প্রথম খবরটা আমাকে লিখতে বসালো,তা হলো জামাতি ধর্মের লোকেরা ও এখন ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্র ব্যবস্থার অন্তর ভুক্ত হলো।তাই বলে আজ আমার মনে হাজার প্রশ্নের ভীড় লেগেছে।প্রথমত তারা দেরি হলেও প্রমান করলো তারা জামায়েত কোনো ইসলামিক দল নয়,,তারা এতদিন বাংলার লক্ষ্য কোটি মানুষের ব্রেইন ওয়াশ করে আজ তারা তাদের আসল পরিচয় দিল।তাই বলে আজ বাংলার প্রতিটি ইসলাম প্রিয় মানুষের কাছে আমার প্রশ্ন থাকবে,,যারা এতদিন আমাদের দেশের অগনিত মুসলিমকে কোরান তফসীরের নাম মৌদুদিবাদ ও জাল হাদিসের প্রচার করে ইসলাম প্রিয় মানুষদের অন্ধকারে ঠেলে দিয়ে আজ রাস্তায় নামিয়ে দিয়েছে শহীদ হবার জন্য সেই ব্যাপার টা কি ভাবে দেখবেন।এতদিন তারা জিহাদ করেছিল ইসলামের নাম দিয়ে,আজ তাদের ইসলামিক গঠনতন্ত্রই বদলে দিয়েছে।সাধারণ দুনিয়ারি ক্ষমতার জন্যে,আল্লাহ ও আল্লাহর রাসুল (সা:)কে বাদ দিল।তাই আজ যত ইসলাম প্রিয় মানুষ আছে সবাইকে জিজ্ঞেস করবো এত দিন আমরা কোন পথে ছিলাম।এই জামাতের ভন্ডেরা আমাদের কোন পথে ছেড়ে দিল?শুধু ইকি তাদের স্বার্থের জন্য আমাদের সাথে এই ছলনা করেছে?

আমি বলব হ্যা তাই করেছে, আমি আগেও অনুরোধ করেছি সকল ইসলাম প্রিয় ভাই ও বোনদের কাছে,কারো কাছথেকে ইসলামিক বিষয়ে কোনো কথা শুনলে,তা ভালো ভাবে যাচাই করে নিন।কি ভাবে যাচাই করবেন?যাদের ইসলামিক বিষয়ে ধারণা নেই অথবা আরবী পড়তে জানেন না,তারা এমন একজন ইমাম খুঁজবেন যে ইমামের জীবন চারিত্রে কোনো অহংকার নেই,আর সমাজের মাঝে তিনি সমলোচিত নন।এটাই আল্লাহর কথা তথা কোরানের কথা।আর যাদের জ্ঞান আছে তারা যেন নিজেরাই তার সনদ সহ যাচাই করে।আজ এতদিন যাবত যারা তাদের অনুসারী আছে হয়ত তাদের অনুভুতি আকাশ মাথায় পরার মতো।তবু ও একটি সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছেন মনে করে নিজেকে সঠিক ইসলামের অন্তর ভুক্ত করুন।মনে রাখতে হবে সুযোগ বার বার আসেনা।এখনো যদি ভালো মন্দ যাচাই করতে না পারেন বড়ই অর্থহীন তাদের জীবন যারা ভালো ও মন্দের বিচার করতে পারেনা,সঠিক ইসলামের পথ পেয়েও সে পথে চলতে পারল না।আজ যে ভাবে জামাত, ইসলামের মানহানি করলো শুধুই গনত্রান্ত্রিক রাজনীতির উদ্দেশ্যে।তাই কি প্রমান করেনা যে জামাতি ধর্মের লোকেরা কখনই ইসলামের পক্ষে ছিলনা।এবং তারাই যে স্বাধীনতা যুদ্ধের এক মাত্র রাজাকার তার প্রমান ও পরিষ্কার।তাই আজ যারা সেই রাজাকারদের মুক্তির দাবিতে রাস্তায় হরতাল,মিছিল,ভাংচুর করছেন কি উদ্দেশ্যে জিহাদ নাকি জঙ্গিবাদ?এতদিন এই জামাতের আল্লামা নামে পরিচিত সাইদী আপনাদের মাথায় ইসলামের যে বিষ ঢুকিয়েছে যে ধর্ম নিরপক্ষ রাজনীতি মানেই হলো ধর্মের বিরোধিতা,যার কোনো ধর্ম নাই, নাস্তিকরাই এক মাত্র ধর্ম নিরপেক্ষ রাজনীতি করে। তাহলে যে আজ আপনারা যারা জামাত অনুসারী তারা কোন কাতারে আছেন, আপনাদের কি ধর্ম নাই? আপনারা কি নাস্তিক। না বটে,এই দেল্লা রাজাকার আপনাদের কে এত বছর যাবত কোরানের অপব্যাখ্যা ও জাল হাদীস উপহার দিয়েছে। এই স্বচ্ছ ও পরিষ্কার প্রমান পাওয়ার পর ও যদি কারো জামাতি আদর্শে আদর্শিত হওয়ার ভাবনা থাকে তাহলে সেই আদর্শ আপনাকে জঙ্গিবাদের দিকে নিয়ে যাবেই তাতে কোনো ভুল নেই। এই সুযোগ পাওয়ার পর হয়ত অনেকেই ব্রেইন ওয়াশের মত রোগ থেকে মুক্তি পেয়েছেন,যে রোগের কোনো ঔষধ বা ডাক্তার ও নেই।তার ঔষধ একটাই সত্য।আর যে সত্য জামাতিদের কাছে কখনো ছিলনা ,আজও নেই। আল্লাহ আমাদের বুদ্ধি দিয়েছেন বিবেচনা করার জন্য,আসুন সবাই বিবেচনা করি ও সঠিক পথে চলার চেষ্টা করি।আবারও সবাইকে সালাম ও শুভেচ্ছা। আল্লা হাফেজ।।।