ক্যাটেগরিঃ মুক্তমঞ্চ

প্রত্যহ ফজরের নামাজ শেষে ভোরের স্নিগ্ধ বাতাস নেওয়ার জন্য একরকম অভ্যাসে পরিনত হয়ে গেছে আশপাশটা ঘুরে বেড়ানো, কখনও মাইল খানেক, আবার হয়ত তারও বেশী । সঙ্গী বলতে আমার বন্ধু মিলন। এমনি একদিন হেটে ফিরছি হঠাৎ নজরে পড়লো আদনান ওল্ড হোম এর বিশাল কার্যক্রম ধান ক্ষেতের বুক চিরে উঠছে বহুতল ভবন । এখানে একদিন আশ্রয় নিবে অনেক অসহায়, স্নেহ বঞ্চিত বয়স্ক মানুষেরা, যারা এক সময় কাটিয়েছে আপন জনদের একান্ত সান্নিধ্যে। স্ত্রী, সন্তান, পাড়া প্রতিবেশীদের মাঝে। আজ বার্ধক্য ও অসাহয়ত্য ঘিরে নিয়ে এসেছে এমনি এক ওল্ড হোমের বাসিন্দা করে । যা হয়ত কল্পনা করেনি এমন দিন আসবে। সকল কিছু ছেড়ে একাকীত্ব জীবন কাটাতে অসহায় হয়ে এক নতুন পরিবেশে, অপরিচিত এলাকায়, অপরিচিত মানুষের মাঝে বসবাস করতে হবে ।

আমরা প্রায় শুনি বৃদ্ধাশ্রমে আশ্রয় নেওয়া অনেকের কথা ।

এ রেওয়াজটা হয়ত পূর্বে ছিলনা আধুনা যুগে এসে এর বিস্তৃতি বেশী ঘটছে । এক সময় ছিল একান্নবর্তী পরিবার নিয়ে জীবন কাটাতে স্বচ্ছন্দবোধ করতো পরিবারের সকলে । আর আজকাল পরিবারের বয়োজ্যেষ্ঠ সদস্যরা সকলের মাথা ব্যাথার কারণ হয়ে দেখা দেয় । এর কারণ হয়ত কেহ খুঁজে ফিরে না বা খোঁজার চেষ্টাও করে না পাছে পরিবারের মাঝে অশান্তির কালোছায়া নেমে আসে। তাঁর চেয়ে ভাল সমাধান খোঁজে পায় ওল্ড হোম বা বৃদ্ধাশ্রমে পাঠিয়ে দেওয়াটা উত্তম মনে করে। হয়ত একটা সমাধান খুজে পায় অথচ কেহ কি ভাবে যাকে ওল্ড হোমের বাসিন্দা করতে যাচ্ছে , তাঁর ইচ্ছেটা কি ? সে কি এ পরিস্থিতি কে মেনে নিতে পারছে, সকল কিছুকে ছেড়ে যেতে চাচ্ছে, না অনিচ্ছা স্বত্তেও যেতে বাধ্য হচ্ছে সকলের মঙ্গল কামনা করে ।

যে যাচ্ছে সে কি পাচ্ছে। সে কি শুধু দিতে এসেছে বিনিময়ে কিছু পাওয়ার আশা কি করতে পারে না সকলের কাছে ?