ক্যাটেগরিঃ দিনলিপি

২৫-১১-২০১২ তারিখে আশুরার ছবি তোলার জন্য হোসেনি দালান গিয়েছিলাম। ওখানে পূর্ব পরিচিত তানভির ও তার দলবলের সাথে দেখা। তাদের সাথে আজিমপুর মোড়ে গেলাম। ছবির তোলার জন্য সব থেকে ভাল জায়গা ওভারব্রিজে কিন্তু সেখানকার যে অবস্হা আমরা তো’ ভাল পিঁপড়ার পক্ষেও ওঠা সম্ভব কিনা সেটাই সন্দেহ। ঠিক হলো নীলক্ষেত ওভার ব্রিজে উঠবো। দলটা এক পা এগোয় তো দুই পা পিছোয়। আমি দ্রুত হেটে গিয়ে ওভার ব্রিজে উঠে একটা সুবিধা জনক জায়গা দখল করলাম। ছবি তোলার জন্য ক্যামেরাটা যেই উঠিয়েছি লেন্সক্যাপটা খুলে একেবারে রাস্তায় গিয়ে পড়ল। ওপর থেকে ক্যাপটা দেখতে পাচ্ছি, নীচে গিয়ে উঠিয়ে আনার আগ্রহ পেলাম না, আমি নীচে যেতে যেতে গাড়ীর চাকার নীচে পড়া ক্যাপের গুড়া ছাড়া আর কিছুই পাব না। হটাৎ দেখি এক ভদ্রলোক একটু ঝুঁকি নিয়েই ক্যাপটা তুলে নিয়ে উপরে তাকালেন, আমি হাত দেখিয়ে নীচে নামলাম। ক্যাপটা ভাল অবস্থাতেই ফেরত পেলাম। ওনার কাছে জানলাম বাচ্চাকে মিছিল দেখাতে এনেছেন। বাচ্চাটার ছবি তুলে ভদ্র লোককে ধন্যবাদ দিয়ে আবার উপরে উঠলাম।

বাবার সাথে বাচ্চাটার যে ছবিটা তুলেছি সেটা আমার কাছে খুব প্রাণবন্ত লাগছে (হয়তো নিজের তোলা বলে)। ভদ্রলোককে কৃতজ্ঞতা হিসাবে ছবিটার একটা প্রিন্ট দিতে চাচ্ছি। কোন ব্লগার ভাই বোন যদি ভদ্রলোককে চেনেন তবে ওনার কন্টাক্ট নাম্বার বা ঠিকানা দিলে বাধিত হব। ভদ্রলোক মটর সাইকেলে চলাচল করেন।

“বিপদে যাদের কথা সবার আগে মনে পড়ে তারা হল আমার ব্লগার ভাইরা। এত দ্রুত সাহায্য আর ইনফো আর কোথাও পাইনা”। বলেছেন : দু:খ করে
http://www.somewhereinblog.net/blog/monerdukkho