ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

 

যারা প্রিপেইড মোবাইল ফোন ব্যাবহার করেন তাদের অনেকেই সঙ্গত কারণে ফোনে টাকা ভরার বর্তমান পদ্ধতি ব্যবহার করতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন না। এখন মোবাইলে টাকা ভরতে হলে এজেন্টের কাছে গিয়ে মোবাইল নাম্বর বললে বা লিখে দিলে এজেন্ট মোবাইলে চাহিদা মত টাকা ভরে দেয়। যুক্তিসঙ্গত কারণেই এভাবে এজেন্টের কাছে নিজের মোবাইল নম্বর জানানো অনেকে পছন্দ করেন না। অতি সহজেই এ সমস্যার সমাধান করা যায়। মোবাইল ফোন অপারেটররা প্রত্যেক মোবাইল নম্বরের বিপরীতে একটা কোড নম্বর ইস্যু করবে। যে গ্রাহকের (মোবাইল ফোন ব্যবহারকারী) এজেন্টের কাছে তার মোবাইল নম্বর জানাতে চান না তিনি তার কোড নাম্বারটা বলবেন বা লিখে দেবেন এজেন্ট ওই কোড নম্বর অনুযায়ী টাকা গ্রাহকের হিসাবে জমা করবেন। গ্রাহকের ফোন নম্বর এজেন্ট জানতে পারবে না। এখন গ্রাহক যে ভাবে তার ব্যালেন্স দেখে অনুরূপ ভাবে একটা নির্দিষ্ট নম্বর ডায়াল করে (যেমন *# ৩৩৬৬*) তার কোড নম্বর জানতে পারবে। কোড নম্বর ব্যাবহার করে কোন ভাবেই মোবাইল নম্বর জানা যাবে না। একই সাথে মোবাইল নম্বর দিয়ে অথবা কোড নাম্বার দিয়ে টাকা ভরার উভয় পদ্ধতি চালু রাখা যেতে পারে। গ্রাহক তার সুবিধা মত পদ্ধতি ব্যবহার করবেন। যেহেতু বর্ত্তমান মোবাইল নম্বর এর ১১ সংখ্যার এবং এর প্রথম ৩টা অপারেটরের জন্য নির্দিষ্ট তাই টাকা ভরার কোড ৮ সংখ্যায় হতে পারে। বিষয়টা মোবাইল অপারেটররা ভেবে দেখতে পারেন।