ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

‘বিজয় থেকে বিজয়ে’ এই কথাটি কি ঠিক আছে কি না, আমাকে প্রশ্ন করেছিল দুদিন আগে আমাদের এলাকার এক চায়ের দোকানদার। স্বল্প শিক্ষিত সে মানুষটি কেন আমাকে সে প্রশ্নটি করেছিল তা ভেবে পাচ্ছিলাম না তখন। উত্তরে আমি বলেছিলাম-হ্যাঁ ঠিক আছে বাক্যটি। এরপর আর উনি এর বেশি কিছু জানতে চাননি। আমারও বেশ আগ্রহ হল বাক্যটি নিয়ে, মনে প্রশ্ন জেগেছিল- কেন হঠাৎ সেই চা বিক্রেতা এই বাক্যটি বলেছিল! পরে জানতে পেরে নিজের কাছেই পুলকিত অনুভব করেছিলাম। বিজয় থেকে বিজয়ে শব্দটি কেন একজন চা বিক্রেতার এত উৎসাহের কারন ছিল, তা আপনারাও জানেন নিশ্চয়ই। মানুষ এখন জানার চেষ্টা করে এবং জানতে পারে সহজেই তার বিজয় সম্পর্কে, দেশ সম্পর্কে। যেহেতু বিজয়ের মাস ডিসেম্বর, তাই বিজয় নিয়ে ভাববে তো অবশ্যই এ দেশের স্বাধীনতার পতাকা তলে থাকা মানূষগুলো।

কিন্তু ২০১২ সালের বিজয়ের মাস আপনি-আমি-তিনি মানে আমরা সবাই স্বাচ্ছন্দ্যে উদযাপন করতে পারছি না বলে ধরে নেন, আমি নিশ্চিত। আশা করি এই অধমের নিশ্চিত ভবিষ্যদ্বানী যেন ভুল প্রমানিত হয়। এবার বিজয়ের মাস উদযাপন করতে পারছেন না সে চা বিক্রেতা, উদযাপন করতে পারবে না সাধারণ আপামর মানুষ। ডিসেম্বর মাসে মানুষ বিজয়ের মাসের চেতনায়, দেশ-মাতৃকার রক্তক্ষয়ী পার করা অতীতকে মনে করবে। জাতি স্মরণ করবে তাদের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের, জাতি স্মরণ করবে ১৪ই ডিসেম্বর এ দেশ থেকে চিরতরে যাদের হারিয়ে ফেলেছিল সেই সব শহীদ বুদ্ধিজীবীদের। জাতি মনে করবে খুনি রাজাকারদের সেই সব হিংস্রতার আর ঘৃণায় থুথু ফেলবে তার স্বাধীন দেশটার স্বাধীন ভূমিতে। তা হতে দিচ্ছে না।

কারণ যারা এই সব করতে দিবে না আমাদের স্মরণ করার,তারা এখন মাঠে। হরতাল হবে এই মাসে, রাজপথ অবরোধ হবে এই মাসে, অরাজকতা হবে এই মাসে। আপনি যতই ঘরে বসে নিজেকে আরাম কেদারায় হেলান দিয়ে আয়েশি ভঙ্গিতে নিরাপত্তার বলয়ে জড়িয়ে রাখুন না কেন, আপনি নিজেও শান্তিতে থাকতে পারবেন না। হাজার হলেও তেনাদের কর্মসূচী এই সরকার উৎখাতের পাঁয়তারা, ক্ষমতার মসনদের বসার লোভ, আরেকবার রাজাকারের গাড়িতে স্বাধীন পতাকা উড়িয়ে দেয়ার নগ্ন উল্লাস। ডিসেম্বর মাসের ভাবগাম্ভীর্য নষ্ট করার পাঁয়তারা চলছে রাজনৈতিক কর্মসূচীর আড়ালে।

বিজয়ের মাসে মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে সম্পুর্নভাবে জামাত-শিবির গং। সাথে ঢোল বাড়ি দিয়েছেন আমাদের বিরোধী দলীয় ম্যাডাম। বাহ! বাহ! আসুন সবাই বগল বাজিয়ে অপেক্ষা করি আর চেয়ে চেয়ে দেখি একাত্তরের পরাজিত শত্রুদের বিজয়ের মাসকে নষ্ট করার পাঁয়তারা।

সাধু সাবধান।