ক্যাটেগরিঃ প্রকৃতি-পরিবেশ

পদ্মা না থাকলে কিইবা হত আমাদের। জোর কিছু মাছ খাওয়া হতে বঞ্চিত হত বাঙ্গালী জাতি। সাথে সাথে নদীতে নৌকা চালানো যাদের শখ সেটা হতোনা। কিন্তু পদ্মা নদী হওয়ায় বাংলাদেশ এখন পড়েছে দারুণ জঞ্জালে। সরকার যেভাবে পদ্মাকে নিয়ে সংকটে পড়েছে তাতে মনে এটা কোন মানুষ হলে এতদিন গুম হয়ে যেত। পদ্মার ভাগ্য ভালো যে সে মানুষ নয়। পদ্মা আবুল হোসেনের মন্ত্রিত্ব কেড়ে নিয়েছে, মসিউর রহমানকে ছুটিতে যেতে বাধ্য করেছে, দুর্নীতিবাজদের চেহারা সামনে নিয়ে এসেছে, সরকারের কূটনৈতিক বর্থতাকে প্রকট করে তুলেছে, বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তিকে ক্ষুন্ন করেছে।

পদ্মা যেভাবে সংকটের সৃষ্টি করেছে তাতে আমার মনে হয় সরকারের উচিত পদ্মাকে ভরাট করে ফেলা। এতে সেখানে ব্রিজও দিতে হবে না আবার বিশ্বব্যাংকের নিকট থেকে ঋণও নিতে হবেনা। যে পদ্মা আমাদের এতটা মান সম্মান বিনষ্ট করল, যে আমাদের মন্ত্রি মহোদয়কে হেনস্তা করল তার অস্তিত্ব থাকার কিইবা দরকার। তাই আমি পদ্মা ভরাটের পক্ষে। এতে হয়তোবা কিছু জেলে কান্নাকাটি করতে পারে। তাতে আর কি হবে? কয়েকজন জেলের জন্য তো আর দেশের মানসম্মান নিয়ে কেউ খেলতে পারেনা।

অথবা সরকার পদ্মার উপর ক্ষোভ মেটানোর জন্য সেখানে পারমানবিক বোমা ফেলে হিরোসিমা ও নাগাসাকির মত অবস্থা তৈরি করতে পারে। অবশ্য এজন্য রূপপুর পরমাণু কেন্দ্রকে আরও শক্তিশালী করতে হবে। সমস্যা আর কি! রাশিয়া তো আমাদের পাশে আছেই। প্রয়োজনে আমরা রাশিয়া থেকে পারমাণবিক বোমা ক্রয়ও করতে পারি পদ্মায় নিক্ষেপের জন্য।

এছাড়া সরকার পদ্মার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করতে পারে। এত একটা সুবিধা হল আমাদের মত তরুণরা যারা ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করতে পারিনি (বয়সের দোষে) তারা এখন পদ্মা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করতে পারবে। আর এ যুদ্ধে অংশগ্রহণ করতে পারলেই তো আমাদের মুক্তিযুদ্ধের (পদ্মার বিরুদ্ধে যুদ্ধও একধরনের মুক্তিযুদ্ধ) সার্টিফিকেট দেয়া হবে। এতে চাকুরীর ক্ষেত্রে আমাদের জন্য সুবিধা হবে। আমরাও নিজেদেরকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে ঘোষণা করেত পারব। স্বগর্বে বলতে পারব আমরাও দেশের কল্যাণে যুদ্ধ করেছি। তাই আমার মনে হয় সরকারের উচিৎ পদ্মার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করা, অন্তত তরুণ সমাজের কথা চিন্তা করে হলেও।

সবশেষে একটি কথাই বলতে চাই, পদ্মার মত ঘটনা যাতে ভবিষ্যতে বাংলাদেশে আর না ঘটে সেজন্য সরকারকে এখন থেকেই মনোযোগী হতে হবে। পদ্মার মত কোন নদী যেন আর দেশের লোকদের মাঝে বারবার আশা জাগিয়ে নিরাশায় পতিত করতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।