ক্যাটেগরিঃ ব্যক্তিত্ব

 

আজ ফিদেল ক্যাষ্ট্রোর ৮৫ তম জন্মদিন । পুরো নাম ফিদেল ক্যাষ্ট্রো আলেকজান্দ্রো রুজ। ফিডেল ক্যাষ্ট্রো নামেই পরিচিত । ১৩ আগষ্ট ১৯২৬ সালে একটি ধনী কৃষক পরিবারে জন্ম।একজন কিউবান বিপ্লবী ও রাজনীতিবিদ। ১৯৫৯ সাল থেকে ১৯৭৬ সাল পর্যন্ত কিউবার প্রধানমন্ত্রী এবং ১৯৭৬ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত রাষ্ট্রপতির দ্বায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি কিউবার কমিউনিস্ট পার্টির প্রথম সেক্রেটারী হিসেবে ১৯৬১ সাল থেকে ২০০১ পর্যন্ত দ্বায়িত্ব পালন করন।যদিও তখন এটি কমিউনিষ্ট পার্টি নামে ছিলো না। প্রথম দিকটায় নাম ছিলো “২৬ জুলাই মুভমেন্ট”।

কাস্ত্রো হাভানা বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন অধ্যয়নরত অবস্থায় বামপন্থী এবং সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন ।পরবর্তীকালে ডোমিনিকান প্রজাতন্ত্র এবং কলোম্বিয়ায় দক্ষিণপন্থী সরকারের বিরুদ্ধে সশস্ত্র বিপ্লবে যুক্ত ছিলেন। তিনি ১৯৫৩ সালে হাভানার মনকাডা দূর্গ(প্রেসিডেন্ট প্যালেস) আক্রমন করে সারা বিশ্বের নজর কাড়েন। মনকাড়া দূর্গে অল্প কিছু কমরেড নিয়ে সশস্ত্র আক্রমণের নেতৃত্ব দিয়ে ব্যর্থ হন। সেই অভিযানে ব্যর্থ হয়ে কারারুদ্ধ ছিলেন কাস্ত্রো । দেশদ্রোহিতার অভিযোগ ওঠে ক্যাষ্ট্রোর বিরুদ্ধে। পরে অবশ্য জেলখানা থেকে মুক্তি দেয়া হয়। মেক্সিকোতে থাকা অবস্থায় ছোট ভাই রাউল কাস্ত্রো এবং বন্ধু চে গুয়েভারাসহ অনেক কমরেডের সাহায্য নিয়ে গেরিলা যুদ্ধের মধ্য দিয়ে মার্কিন সাহায্যপুষ্ট প্রেসিডেন্ট ফুলজেন্সিও বাতিস্তা সরকারের পতন ঘটিয়ে ক্ষমতা দখল করেন।

ফিডেল কাস্ত্রো’ আদৌ কমিউনিষ্ট কিনা তা নিয়ে অনেকের মধ্যে বিতর্ক থাকলেও তিনি যে মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী একজন দেশপ্রেমিক জাতীয়তাবাদী সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। বিশেষত কিউবা বিপ্লবের গেরিলা যুদ্ধের সাফল্য সারা বিশ্বের বিপ্লবীদের জন্য এখনো প্রেরণা জোগায়।

ফিডেল কাস্ত্রোর জন্মদিনে অনাবিল শুভেচ্ছা।

তথ্য সূত্র:গ্রানমা(কিউবার কমিউনিষ্ট পার্টির মুখপত্র)