ক্যাটেগরিঃ চারপাশে

প্রতি বছরের ন্যায় এবারও সরকার দরিদ্র-অসহায়,নিন্ম আয়ের মানুষদের ঈদ আনন্দে সহয়তা করছে । সারাদেশে ৬৬ লাখ পরিবারেকে ঈদের স্পেশাল ভি.জি.এফ কার্ডের মাধ্যমে বিনামল্যে ১০ কেজি করে চাউল বিতরন করা হচ্ছে । এসব কার্ড বিতরনে স্বজনপ্রীতি-দূর্নীতি-দলীয়করন সহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগেও রয়েছে । স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ কতৃক নাম কা ওয়াস্তে দরিদ্রদের তালিকা করা হলেও চাল বিতরনের সময় তালিকা অনুযায়ী চাল না দিয়ে দলীয় বিবেচনায় অনেক ধনীদের ঘরে চলে যাচ্ছে এই চাল ।

সরকারের উপহার এই ১০ কেজি চাল বিতরন করেও খুলনা জেলার কয়রা উপজেলার দক্ষিন বেদকাশী ইউনয়নের মানুষের মুখে হাসি ফুটানো সম্ভব হচ্ছে না । উল্লেখ্য যে ২৫ মে ২০০৯ সালে “আইলা”র আঘাতে ক্ষতিগ্রস্থ দক্ষিন বেদকাশী ইউনিয়নের “পাতাখালী” পানি উন্নয়ন বোর্ডের রাস্তাটি দীর্ঘ তিন বছরেও মেরামত করা সম্ভব হয়নি । পরপর তিন বছর ঈদের আনন্দ ঐ এলাকার মানুষের জন্য দু:স্বপ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে । দূর্গত মানুষ সার্বক্ষনিক লবন পানির সাথে সংগ্রাম করে কোন রকম দূর্বিসহ জীবন কাটাচ্ছে । এ অবস্থায় ঈদের আনন্দ তাদের কাছে নিরানন্দ হয়ে দাড়িয়েছে ।

দূর্গত মানুষ জামা-কাপড় তো দুরের কথা সেমাই-চিনি কেনার সামর্থ্যও হারিয়ে ফেলেছে। মানুষের আয়ের কোন উৎস নেই এবং অধিকাংশ মানুষ এখন বেকার । অভাবের তাড়নায় শত শত পরিবার এলাকা ছেড়ে জলবায়ু উদ্বাস্তুতে পরিনত হয়েছে। ইতিমধ্যে শত শত পরিবার এলাকা ছেড়ে অনত্র পাড়ি জমিয়েছে । সংখালঘু সম্প্রদায়ের অনেকেই প্রতিবেশী দেশ ভারতে চলে গেছে ।

এর মধ্যে কয়েক সপ্তাহ অতিবৃষ্টিতে মানুষ নাজেহাল হয়ে পড়েছে । মুসলিম সম্প্রদায় রমজানের ব্রত পালনে হিমসিম খেয়েছে । অনেক পরিবার দুবেলা দুমুঠো খাবার সংগ্রহ করতে পারছে না । সরকারী ও বিভিন্ন বেসরকারী সংস্থা কতৃক বিতরনকৃত ত্রান সামগ্রীও এখন কমে এসেছে । শিক্ষা প্রতিষ্টানগুলোতে এখনো স্বাভাবিক শিক্ষা-জীবন শুরু হয়নি এবং সূপেয় পানির তীব্র সংকট ।

এখনও হাজার হাজার পরিবার বিভিন্ন শিক্ষা কেন্দ্র ও পাওবোর রাস্তার উপর অস্থায়ী ঝাপড়ি বেধে বসবাস করছে । রাস্তাঘাট বিচ্ছিন। মানুষের চলাচলের একমাত্র মাধ্যম এখনো নৌকা । ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করার মত উচু জায়গাও নেই । অনেকেরই ঈদের নামাজ হবে রাস্তায় ও কিছু কিছু মসজিদে।

উল্লেখ্য যে অনিয়ম,অব্যবস্থাপনা ও ব্যাপক দূর্নীতির কারনে ‘পাতাখালী বাধটি সংস্কারে বিলম্ব হয় এবং অবশেষে সেনাবাহিনীর উপস্থিতিতে গত জানুয়ারী ২০১১ অন্যান্য বাধ সম্পন্ন হলেও অভিশপ্ত পাতাখালী বাধটি মাত্র দুই ঘন্টার ব্যবধানে আবার ভেঙ্গে যায়।

সরকারী উপহার ১০ কেজি চাল কি ওদের ঈদের আনন্দ ফিরিয়ে দিতে পারবে ?

তথ্য সূত্য : কয়রা উপজেলার দক্ষিন বেদকাশী ইউনিয়নে বসবাসরত আত্বীয়-স্বজনদের সাথে কথা বলে জানা গেছে ।
ছবি সূত্র : ইন্টারনেট