ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

 

ভাই জায়েদুর রহমান আপনার প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই বলছি ‘সম্মুখ বিষয় নিয়ে মাতামাতি করা কারও গভীর চিন্তার পরিচয় নয় ।” আজকাল মিডিয়াতেও দেখি অনেক আলোচক আসেন যারা সম্মুখ বিষয় তুলেধরে বর্তমানকে গালি দিয়ে থাকেন ! কিন্তু শুভবুদ্ধির পরিচয় হচ্ছে অতীত ইতিহাস ঘেঁটে বেরকরা যে এর সমাধান করতে পূর্বে কে কতটা সক্ষমতা অর্জন করেছে । আমার লেখার উদ্দেশ্য ছিল যারা সম্মুখ বিষয় নিয়ে মামামাতি করে তাদের জবাব দিতে , আশারাখি আপনি অতীত ইতিহাস ঘেঁটে কথা বলবেন কেননা অপনার তা জানা আছে বলে আমি মনে করি ।

বেশিরভাগ যুবক মনেকরে বর্তমান পরিস্থিতির চেয়ে খারাপ পরিস্থিতি সম্ভবত কখনও ছিলনা , তাই বর্তমান পররাস্ট্রমন্ত্রী আথবা অনেকের সমালোচনা করেন , কিন্তু অতীত ঘাঁটলে আমরা কি দেখি ? এই সীমান্ত হত্যা কি বিএনপি সময়ে হয়নি ? তারা কি প্রতিবাদ জানিয়েছিল ? সরি , দলীও ভাবে কথা প্রকাশ না করলে আমি পরিস্কার করতে পারব না । জায়েদুর ভাই আপনি বাংলাদেশের রেকর্ড ঘাটলে দেখবেন সীমান্ত হত্যা ২০০১ হতে ২০০৭ সাল কত জন মারাগেছে আর এই সরকারের সময় কতজন মারা গেছে , সংখ্যায় অনেক অনেক কোম , তবুও সাবেক পররাস্ট্রমন্ত্রীকে না টেনে কিছু ব্যক্তি শুধুই মনেকরে এই পররাস্ট্রমন্ত্রীই একমাত্র ব্যর্থ !! কেন , মোশাররফের সময়ে কেন প্রতিবাদ জানানো হয়নি ? তিনি কতটা সফল ছিলেন যে তারা প্রতিবাদের ভাষা হারিয়ে ফেলেছিলেন ? বর্তমানে তো অনেক কোমেছে বরং ভারত ক্ষমাও চেয়েছে , এটা কি আগের সরকারের চেয়ে কিছুটা হলেও উন্নত পররাস্ট্রনীতির গুণে নয় ?

আমি বলছিনা ভারত খুব ভালকাজ করছে , তবু একবার চিন্তা করুণ , ফেলানী মরেছে কাঁটাতারের বেড়াতে ঝুঁলে , ভারতীয় সীমান্তে ! কিন্তু আমাদের দেশের অভ্যন্তরে কি বাংলাভাই নওগাঁতে বাদশাকে গাছে ঝুঁলিয়ে মারেনি ? সেটা ত এই দেশে ভূখন্ডের মধ্যেই ছিল ! কোথায় ছিল প্রশাসন ?? কোথায় ছিল আপনাদের সমালোচনা ? আবারও বলি অতীত নিয়ে তুলনা করবেন সব সরকারের কার্যপরিধি । আমরা আজ তিস্তা নিয়ে সরকারকে গালি দিয়েথাকি , আগের সরকার কেন করতে পারেনি ? কেন মীর্জা হাফিজ ক্ষমতায় থাকতে বলেছিলেন “ভারতের সাথে আমরা কি যুদ্ধ করব? তারা বড়দেশ !” কেন খালেদা ভুলেগেছিলেন গঙ্গা পানির চুক্তির কথা ? কেন টিপাইমুখের কোন তথ্য বিএনপি সরকার আদায় করতে পারেনি ? আজ যৌথ সমীক্ষা হচ্ছে , যে কোন বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে পাল্টা জবাব দিচ্ছে , ক্ষমাও চাচ্ছে , এগুলো কি বর্তমান পররাস্ট্রমন্ত্রীর আগের মন্ত্রীর চেয়ে কিছুটা হলেও সাফল্য নয় ? তবুও কেন বলাহয় এই পররাস্ট্রমন্ত্রী ইতিহাসরে শ্রেষ্ট ব্যর্থ ??

এখন আসি আপনা উদাহরণের কথায় , আপনি বলেছেন দেশে কোন বিষয় বিরোধী হলেও সেটা কল্যানকর হলে আমাদের গ্রহন করতে হবে ( সারমর্ম বললাম ) , তার উদাহরণ সরূপ বলেছেন ভাষা আন্দোলন ও স্বাধীনতা যুদ্ধের কথা , যেখানে পাকিস্তানের বিপক্ষ কাজ দেশ বিরোধীতারই সামিল ছিল ।

আমি আপনার সাথে এই বিষয়ে ১০০% একমত । কেননা , বিরোধীতার খাতিরে বিরোধীতা নয় , বাস্তবতা মেনে কথা বলার দায়িত্ব সবার , আমারও । ভাষা আন্দোলন ন্যায্য অধিকার ছিল , কিন্তু সাইবার যুদ্ধ ন্যায্য অধিকার নয় তাই ওটার সাথে এটার তুলনা আমার মতে ঠিক নয় । দেশের স্বাধীন না হলে শেখ সাহেবের ফাঁসি ঠেকানো যেতনা, আওয়ামী নেতাদের ফাঁসি ঠেকানো যেতনা , মুক্তিযোদ্ধাদের ফাঁসি ঠেকানো যেতনা এটাও মানলাম , কিন্তু তাদের তো এটা কিছু প্রাপ্তির জন্য ছিল , আর সাইবার যুদ্ধে আমাদের কি প্রাপ্তি আছে ? কি স্বার্থ আছে ক্ষতি ছাড়া , তো কোন লাভ দেখছিনা , হ্যাঁ তবে আবেগের দিকথেকে কিছু মানুষ সাবাস বলছে এটা ঠিক তবে তাতে দ্বন্দ্ব বাড়বে ছাড়া কোমবে না । আর যে কোন দেশের দায়িত্ব হচ্ছে বৈরিতা কোমান , বাড়ানো নয় ! পাকিস্তান খুব চেষ্টা করছে আমেরিকার সাথে দ্বন্দ্ব কোমানে , কই , তাদের মানুষ কি কোম মরেছে ? আমাদের দেশের কিছু হত্যার চেয়ে কি ড্রোন হামলায় বেশি মরেনি ? তবে পাকিস্তান তার পরেও কেন শান্তি শান্তি করে দৌড় দিচ্ছে ?? ইসরায়েলে হত্যার কথা বলেছেন , আমিও একমত , কিন্তু ফিলিস্তিন কি শান্তির বার্তা নিয়ে বিশ্বভ্রমণ করছেনা ? সহজ সমাধানের পথ খুজছেনা ? তবে কেন আমাদের বিরোধ বাড়াতে হবে ?
আপনি কৌশলে আপনার মনের কথা ব্যক্ত করেছেন , সেটা হল “বেগম জিয়াকে নিজস্ব বাসস্থান থেকে সরকার বহিস্কার করেছে কথাটা উল্লেখ করে ! এক্সকিউজ me ঐ বাসা তার মোটেও নিজস্ব নয়, সরকারের বাসা তিনি অবৈধভাবে দখলে নিয়েছিলেন আর আদালতকে অবমাননা করে সেখানে স্থাপনা তৈরি করেছিলেন যা বেআইনি ছিল । আদালত পরিপূর্ণ বিশ্লেষণ করেই রায় দিয়েছে আর তাতে তাকে আদালতের রায় মানতে বাধ্য করা হয়েছে , যেটা ছিল আইনগত প্রক্রিয়া , আপনি আপনার কথাটা বলে আদালত আবমাননা করেছেন । ওটা মোটেও জোড় করে বের করা হয়নি বরং রায়ের ভিত্বিতেই ফায়সালা হয়েছে । বিরোধী দলের নেত্রীরই উচিত ছিল রায় মেনে ছেড়ে দেয়া কেননা তিনি নিজেই হাইকোর্টে রিট করেছিলেন , হারার পর স্বেচ্ছা রায় না মেনে তিনি নাটক করে ঘরে বসেছিলেন কেন , যখন ৭০% আসবাবপত্র আগেই গুছিয়ে আথবা ট্রান্সফার করেছিলেন ?? তিনি মিডিয়াতে কাঁদলেন আর আপনার মতো মানুষ তার নাটক মেনে নিয়ে তার নিজস্ব বাসস্থান বানিয়ে দিল ! হাউ ফানি !!!!
আপনি বলেছে , ভারত কি পূর্বপাকিস্তানের হাতে অস্ত্র দিয়ে অপরাধ করেছিলনা !! না , অপরাধ করেনি । কারণ , সেই সময়ে ইন্দিরা গান্ধীর জাতিসংঘের ভাষন পরে দেখবেন । বিবিসি সাক্ষাৎকার ভিডিও দেখবেন , তিনি কিভাবে আপনার প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন । তার পরও বলব আমাদের মুক্তিযুদ্ধ আর এই যুদ্ধ এক নয় । আপনি বলেছেন, মাওবাদিরা তাদের ন্যায্য অধিকারের জন্য লড়ছে ! কথাটা এক দৃষ্টিকোন থেকে একমত , এটা মমতা ব্যানার্জীও নির্বাচনের আগে বলেছিলেন যে তিনি মাওবাদিদের আন্দোলনকে মানেন কিন্তু ক্ষমতায় এসে তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাচ্ছেন ।

আমি বলব , যাদের যতবড় চাহিদা থাক তা শান্তি আলোচনা মাধ্যমেই সমাধান করতে হবে , অরূদ্ধতীরায় মানবধীকার কর্মী ও লেখক তিনি মানবতার জন্য মাওবাদীদের কথা বলবেন , কিন্তু সাইবার যুদ্ধ কি মানবতার লড়াই ? আপনিই বলুন ।

আপনি মাওবাদি আর আমাদের মুক্তিযোদ্ধার আন্দোলন এক দেখবেন না , আপনি উল্ফাকে বলতে পারেন তারাও আওয়ামী লীগের (১৯৬৬-১৯৭১) এর মতো স্বাধীনতার আন্দোলন করছে , কিন্তু আমি বলব আপনা ধারনা ভুল ! যতক্ষন তারা সংখ্যাধিক্ষের আন্দোলনে না যেতে পারবে তাদের নাজ্যতা নেই । আর তারা তো নির্বাচিত প্রতিনীধি নয় , যা আওয়ামীলীগ ১৯৭০ সালে মান্ডেট নিয়ে আধিকার আর্জন করেছিল । সেই আধিকার উল্ফার নেই আর তাই তাদের আন্দোলন চরমপন্থিতা কিন্তু আমাদের মুক্তিযুদ্ধ চরমপন্থিতা ছিলনা । তাই আমি বলব সকলকিছুকে এক করে বোঝার চেস্টা করবেন না ! গণতন্ত্রে এমন চরম পন্থিতার কোন স্থান নেই যদিনা আপনা ম্যান্ডেট থাকে !!

ভারতের পা চাটা আমাদের দায়িত্ব নয় , কিন্তু চরমপন্থিতা আমাদের দায়িত্ব নয় । নিজ দেশের বিরুদ্ধ যদি আমাদের দাবি থাকে তবে এমনি আলোচন সমালোচনা আন্দোলন হতে পারে কিন্তু চরমপন্থিতা কোন সমাধান হতে পারেনা । একটা কথা সর্বশেষ বলতে চাই “যুদ্ধ ঘোষণা শুধু রাস্ট্রেরই দায়িত্ব , আমজনতার দায়িত্ব দাবি তুলেধরা , সাধারণ জণগন নিজরাস্ট্রকে টপকিয়ে যুদ্ধ করতে পারেনা ! সেটা কোন তন্ত্রেই আনুমতি নেই , গণতন্ত্র হোক , খিলাফাত হোক বা রাজতন্ত্র ! কোন স্বাশন ব্যবস্থাতেই জনগণ বা কোন গোষ্ঠি কখনই রাস্ট্রের ঘোষণা ছাড়া যুদ্ধের ঘোষণা দিতে পারেনা , সেটা হবে চরমপন্থিতা , সন্ত্রাসবাদ !!!

ধন্যবাদ …………….