ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

‘ভর্তির জন্য এসএমএস করার সময় কলেজকে অগ্রিম বুকিং মানি দিতে হবে। তা না হলে আসন সংরক্ষণের নিশ্চয়তা নেই। এ কেমন কথা? এমন হলে ছেলেকে কিভাবে ভর্তি করাবো?’ কথাগুলো বলছিলেন ক্যামব্রিয়ান কলেজে ভর্তি হতে আসা শান্তর মা সালমা পারভীন। তিনি জানান, ক্যামব্রিয়ান কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন ভর্তির নিশ্চয়তা পেতে হলে এসএমএস করার সময় শুধুমাত্র তাদের কলেজের নাম লিখতে হবে।

শুধু সালমা পারভীনই নয়; ঢাকার বিভিন্ন কলেজে সন্তানকে উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণীতে ভর্তি করতে আসা অনেক অভিভাবকেরই অভিযোগ একই। অনলাইনে উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণীতে শিক্ষার্থী ভর্তিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তকে উপেক্ষা করে অনেক কলেজ ভর্তি বাণিজ্যে লিপ্ত হয়েছে। কিন্তু এসব কলেজগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছেনা ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ। অভিযোগ রয়েছে, বোর্ডের অসাধু কর্মকর্তাদের যোগসাজসে এসব অনৈতিক কাজ চলছে। বিনিময়ে কর্মকর্তারা সংশ্লিষ্ট কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছেন মোটা অংকের মাশোহারা।

ভর্তিতে অনিয়মের অভিযোগ সম্পর্কে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ফাহিমা খাতুন বলেন, অনলাইনে ভর্তির নীতিমালা ভঙ্গ এবং সরকার নির্ধারিত ফির চেয়ে বেশি টাকা নিয়ে বিভিন্ন কলেজের বিরুদ্ধে ভর্তি বাণিজ্য ও বেআইনী কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগ তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে শিগগির ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শিক্ষা মন্ত্রনালয় সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষামন্ত্রী নরুল ইসলাম নাহিদের সভাপতিত্বে গত ২ মে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির নীতিমালা চূড়ান্ত করা হয়। নীতিমালার আলোকে এবার একাদশ শ্রেণীতে ৬শ’র বেশি শিক্ষার্থী ভতির অনুমতিপ্রাপ্ত কলেজগুলোতে অনলাইনে ভর্তি বাধ্যতামূলক। নীতিমালা অনুসারে ৩শ’র অধিক আসন থাকা কলেজসমূহেও অনলাইনে ভর্তির সুযোগ থাকছে। ভর্তির আবেদন শুরু হয়েছে ১২ মে থেকে। ৬ জুন পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। এসএমএস’র মাধ্যমেও আবেদন করার বিধান রাখা হয়েছে। এছাড়া পুনঃনিরীক্ষণের ক্ষেত্রে ফল পরিবর্তন হলে ভর্তির আবেদন/এসএমএস গ্রহণ করার শেষ তারিখ ১৪ জুন।

সূত্র জানায়, ভর্তিচ্ছু ছাত্রছাত্রীদের নিকট থেকে মহানগরীর কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই ৫ হাজার টাকার বেশি গ্রহন করতে পারবেনা। শিক্ষা বিভাগের নীতিমালা অমান্য করে রাজধানীর ক্যামব্রিয়ান কলেজ, মাইলস্টোন কলেজ, ন্যাশনাল আইডিয়াল কলেজ, কুইনমেরি কলেজ, গুলশান কমার্স কলেজ, মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ, নটরডেম কলেজ, উত্তরা হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজসহ এর বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থীদের কাছ বুকিং মানি আদায় করে ভর্তি অব্যাহত রেখেছে। নীতিমালা অনুযায়ী বোর্ডের সিদ্ধান্তের আগে বুকিং মানি নেয়া বেআইনী। এর মধ্যে উপরোক্ত কলেজ দু বছরের প্যাকেজে দেড় লাখ থেকে সাড়ে তিন লাখ টাকা পর্যন্ত নিচ্ছে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর কাছ থেকে।

জানা গেছে, গত ৫ মে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা’র আওতায় ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেনীর ভর্তির কার্যক্রম অনলাইনে সম্পন্ন কারার সিদ্ধান্ত নেয়া হয় ঢাকা বোর্ডের সভা কক্ষে আন্তঃবোর্ড সমন্বয় কমিটির আহবায়ক ও ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ফাহিমা খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে। বৈঠকে ময়মনসিংহ গভঃ কমার্সিয়াল ইন্সটিটিউট, কুমিল্লা গভঃ কর্মাসিয়াল ইন্সটিটিউট, পাবনা গভঃ কমার্সিয়াল ইন্সটিটিউট, দিনাজপুর গভঃ কমার্সিয়াল ইন্সটিটিউট, দোহার নবাবগঞ্জ কলেজ, সাভার কলেজ, কুষ্টিয়া গভঃ কমার্সিয়াল ইন্সটিটিউট, বেগম বদরুন্নেসা গভঃ গার্লস কলেজ, ঢাকা কমার্স কলেজ, ভিকারুন্নেসানুন কলেজ, মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ, রাজউক উত্তরা কলেজ, বিসিআইসি কলেজ, ঢাকা কলেজসহ ১৫৯ টি কলেজের অধ্যক্ষ উপস্থিত ছিলেন।

(প্রতিবেদনটি ঢাকা টাইমসটোয়েন্টিফোর ডটকমে প্রকাশিত)