ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছিলেন , “ দেশ মানুষের সৃষ্টি । দেশ মৃন্ময় নয় , সে চিন্ময় । মানুষ যদি প্রকাশমান হয় তবেই দেশ প্রকাশিত । ”
একদম মনের কথা তিনি বলেছেন । আমরা নতুন রা যেরকম করে ভাববো , যে রকম কাজ করব , দেশ সেটাই বহিঃ বিশ্বে আমাদের দেশের পরিচয় বয়ে আনবে । তাই আমরা স্বপ্ন দেখতেই পারি একদিন জাগরন উঠবে । তরুন আর নব প্রানেরা জেগে উঠবে । তাদের কর্মে, তাদের গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পরবে । অনেক সফলদের মাঝে আমাদের বুঝতে বাকি রয় না । বিদেশে আমাদের তরুন রা অনেক মৌলিক কাজ করছে । ইন্টারনেট ভিত্তিক অনেক জায়গায় ওঁদের বিশ্বনেতা বলা হচ্ছে । আমরা যদি দেখে আমাদের দেশে যেইসব মেধাবী তরুন আছে তাদের এখন কয়েক রাস্তা খোলা আছে…

সরকারী চাকুরী ( বি সি এস )
কয়েকটা বেসরকারী ও মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানির চাকুরী
ব্যাংকের চাকুরী
বিদেশে পড়তে গিয়ে …
নাহলে ব্যাকার থাকা..

ওদের আরো সুযোগ দিতে হবে । ওদের আর ভাবাতে হবে । কারন যুবক রা যা ভাবতে পারে বুড়ো রা তা পারে না, সত্যি পারে না । দেশে আউট সোর্সিং করে এখন অনেকে ভাল করছে । গার্মেন্টস সেক্টরে এখন ও আমরা ভাল একটা বিশ্ববিদ্যালয় করতে পারলাম না । মরিসাস পর্যটন ব্যাবসায় ভাল তাই দুনিয়ার ভাল হোটেল ম্যানেজমেন্ট শিক্ষা প্রতিস্টান ওখানেই । কেন বারবার যেখানে সেখানে বিশ্ববিদ্যালয় করছে। আন্তর্জাতিক মানের কয়েকটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কথা ভাবে না । কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তিতে দেশের ছেলে রা অনেক এগিয়েছে । কিন্তু দেশের সরকারী ওয়েবসাইট গুলো দেখলে কষ্ট হয় । আমরা নতুন দের গ্রহন করতে চাই না। রাজনীতিতে পরিবার গুলো যেকে বসেছে । তরুনের দ্বার রুদ্ধ । রাজার ছেলে রাজা হবে । আর প্রজাদের লুটে খাবে । অনেকটা জমিদার আমলের মত ।

শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হকের একটি কথা মনে পরে গেল বন্ধু ,

“ এ দেশ হিন্দুর নয় , এ দেশ মুসলমানেরও নয় , এ দেশকে যে নিজের ভাববে এ দেশ তার । এ দেশের কল্যান দেখে যার মন আনন্দে ভরে উঠবে এ দেশ তার । আর তার এবং তাদের এ দেশ এবং যারা এদেশের সাধারন মানুষের স্বাধীনতার জন্য সর্বস্ব বিলিয়ে দিয়েছে ও ভবিষ্যতে দেবে । “

আওয়ামী লীগ গত নির্বাচনে একটি বিষয়ে নির্বাচনী অঙ্গিকার দিয়েছিলেন যে তারা সরকার গঠন করলে তাদের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের সম্পদের হিসাব দিবেন । আমরা তরুন প্রজন্ম চাই এর পর কোন সরকার আসলে যেন এরকম মিথ্যাচার করে আসতে না পারে । সবাই সোচ্চার হোন । পত্রিকা অফিস গুলোতে ফোন করুন, ই-মেইল করুন , চিঠিপত্র বিভাগে লিখুন ।

অনেকেই এই টুকু পড়েই হয়তো আমাকে বি এন পির খাসা সমর্থক মনে করেছেন । আসলে এবার আওয়ামী লীগ মিথ্যাচার করে ক্ষমতায় আসছে এর পরের বার বি এন পি আসবে । আমরা যদি মুখ না খুলি , আমাদের টাকার হিসাব না নেই তবে তারা ইচ্ছে মত মিথ্যা আশ্বাস দিতে ভয় পাবে না । আওয়ামী লীগ এখন তাদের অনেক অঙ্গিকার কে অস্বীকার করছেন । এই জন্য আমাদের তরুন দের আরো সচেতন হতে হবে । এরপর কেঊ মিথ্যা বললে যেন বুক কাপে ঐ বুড়া রাজনীতিবিদ দের । আর কেউ যেন সকিনা বিবি কে ঠকাতে না পারে । আমরা যদি না জাগি মা তবে কেমনে সকাল হবে ।

আওয়ামী লীগের Election Manifesto of Bangladesh Awami League for General Election 2008. এ পড়ুন

http://198.104.176.144/autoalbd/images/stories/election2008/al_manifesto_2008.pdf

অগ্রাধিকার এর বিষয় হিসেবে এখানে ২নং অনুচ্ছেদ সহ আরো কয়েক জায়গায় এই কথা উল্লেখ রয়েছে । তাদের নেতা – নেতারাও সেই সময়ে বিভিন্ন জনসভাতে এই ওয়াদা করছিলেন ।

কারও কাছে এইসব প্রতিশ্রুতির ভিডিও লিংক বা অন্য কোন লিঙ্ক থাকলে দয়াকরে শেয়ার করবেন । আমার পরিচিত অনেক আওয়ামী লীগ সংসদ সদস্য এই তিন বছরে অগাথ সম্পত্তির মালিক হয়েছেন । এমন অনেকেই আমার আত্মীয় ও কাছের হওয়ার কারনে আমার চোখে হয়তো ব্যাপার টা বেশী চোখে পরেছে । আমি ও আমরা আর এই জাতীয় সম্পদ লুট হতে দেখতে চাই না । আপনার ক্ষমতা(ভোট)য় তারা আজ ক্ষমতাবান । মনে রাখবেন ভয়ের দিন ফুরালো বলে । তারেক জিয়া , জয়নাল হাজারী , শামীম ওসমান , বাবর কেউ আজ আর আসীম ক্ষমতা নিয়ে সব করতে পারে না । সত্যের ক্ষমতা তে বিশ্বাস রাখতে হবে । তরুণদের কোন ভাবেই নিরাশ হলে চলবে না । কন্ঠ তুমি উঁচুতে তুলো নবীন । হিসাব চাও । হিসাব দিতে হবে ।

কোথা থেকে এতো সম্পত্তি এলো এই সংসদ সদস্যদের কাছে । হিসাব চাই ।

অসহায় এর মত চিল্লামু ।
কুকুরের চিল্লানিতে কোন বাঘ যদি এগিয়ে আসে সেই ভরসায় । .।

আসুন সবাই এক হই । সম্পত্তির হিসাব চান ।
আমি আমার নির্বাচন এলাকার সংসদ সদস্য’র নির্বাচনের সময় ঘোষিত সম্পদ অ বর্তমানের সম্পদের হিসাব চাইবো । হাইকোর্টে পিটিশন করুম । কেউ হেল্প করলে আরো সহজ হতো ব্যাপার টা । কেও হেল্প না করলেও খুব সমস্যা হবে বলে মনে হয় না । কারন

তোর ডাক শুনে যদি কেউ না আসে তবে একলা চলরে নীতি উত্তম ।

চোরের দল পালাবি কোথায় । ঘিরে ধরবো চারিপাশে .।।

আপনার যানা বিভিন্ন দুর্নীতি গুলো জানেন তারা প্রমাণ সহ লিখুন । যাবে কই ।

জাগো বাহে কুণ্ঠে সবাহেই .