ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

বাংলাদেশের রাজনৈতিক অবস্থা এখন কেমন?

এ নিয়ে কথা বলাটাও এখন অস্বস্তিকর বলেই মনে হচ্ছে।

একদিকে সবচেয়ে সেনসেটিভ বিষয় ‘ধর্ম’ বা তার অবমাননা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ বা কথা বলা হচ্ছে। এ বিষয়ে কথা বললেই ভয়। কারণ ধর্ম এমন একটি বিষয় যা সবচেয়ে সেনসেটিভ। এ বিষয়ে তাই এখন ব্লগে লেখালেখি না করাটাই এখন আবশ্যিক।

কিন্তু অন্যদিকে দেশের সার্বিক অবস্থা নিয়ে যখন কথা বলতে চাই তখনও দেখি তাতে ‘দুই ভাগ’ করে রাখা হয়েছে সকল পাঠক-দর্শক-লেখকদের। আপনি যদি এই পক্ষে না হন তবে আপনি ওই পক্ষে। অর্থাৎ আপনি ‘স্বাধীনতার’ শক্তির পক্ষে না হলে আপনি স্বাধীনতার শক্তির বিপক্ষে।

স্বাধীনতা কী এতা ঠুনোকা বিষয়? যে আমি তার পক্ষে না বিপক্ষে তা মাতামাতি করলেই তার সমাধান হবে?

সবকিছু দেখেশুনে এখন মন্তব্য বা বক্তব্য না করাটাই মানানসই বলেই মনে হয়। কিন্তু এই অবস্থায় মন্তব্য না করেই বা কী করে থাকি?

এ যে আমার দেশের সমস্যা। এ যে আমার ভবিষ্যতের সমস্যা।

এ যে আমার অধিকারের হিস্যা প্রাপ্তি না অপ্রাপ্তির বিষয়।

দেশের এই অবস্থার বদল হবে আশাকরি। আশাকরি মতামত দেয়া বা মত প্রকাশের সুষ্ঠু পরিবেশ গড়ে উঠবে।