ক্যাটেগরিঃ আর্ত মানবতা

আপনার মানবিক সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিন
গত ০৩ ফেব্রুয়ারি খাগড়াছড়ি চন্দ্রমুণি মহাস্থবির নামে এক বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরুর আনুষ্ঠানিক অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া উপলক্ষে জাঁকজমক মেলা বসেছে বিহারে। বিহারটি চট্টগ্রাম বা ঢাকা থেকে খাগড়াছড়ি সদরে ঢোকার পথে অবস্থিত। সকালে হাজার মানুষ মেলায় এসেছে। এই সময় ঘটে গেল মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনা। কেড়ে নিল আটটি প্রাণ। আহত হল অনেকে।

মৃত্যুর ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার সাধ্য কোনো ভাবেই কারোর নেই। তাই মৃত ও তাদের পরিবারের জন্য খাগড়াছড়িবাসী সহানুভূতি ও সমবেদনা জানাল। কিন্তু যারা আহত হয়েছে তাদের জন্য? তাদের অবস্থা কী হবে? তাদের পা ভেঙে গেছে। স্বজন নেই কাছে। মরেও যেতে পারছে না! নেই অর্থবিত্ত সাধ্য!

চিং ক্য হ্লা নামে এক শিশুর সেই অবস্থাই হলো। আলুটিলা দুর্ঘটনার পর থেকে সে কাতরাচ্ছে। তার পা কাটতে হবে, বলছে ডাক্তাররা। তার নেই কোনো সম্বল, নেই স্বজন।

কিন্তু খাগড়াছড়িবাসী অদম্য তারুণ্যের প্রতিনিধি কয়েকজন তরুণ ও তরুণী চিং ক্য হ্লা-র দুঃখের ভাগীদার হতে হৃদয় পেতে দিল। মনপ্রাণ তারা সঁপে দিল চিং ক্য হ্লাকে চিকিৎসা করতে যা লাগে তার ব্যবস্থা করার জন্য। তারা তাদের সাধ্য নিংড়ে চিং ক্য হ্লা-র পাশে দাঁড়াল।

মাঝে মাঝে কেউ কেউ হয়ে ওঠেন বিবেক বিবেকহীনতার মধ্যে পার্থক্যের প্রতীক। কেউ হয়ে ওঠেন মানবিকতা প্রকাশের প্রতীক। কেউ হয়ে ওঠেন মানুষের আশা জাগানোর প্রতীক। হয়ে ওঠেন একটি চ্যালেঞ্জ!

চিং ক্য হ্লা এখন খাগড়াছড়িবাসীর জন্য ঠিক তেমনি এক চ্যালেঞ্জ। আরো অনেকে হয়ত নানা দুর্ঘটনা ও নানা অসুখবিসুখে মৃত্যুযন্ত্রণায় অসহায় হয়ে আছে। কিন্তু চিং ক্য হ্লা এখন তার ব্যতিক্রম। চিং ক্য হ্লা এখন একটি চ্যালেঞ্জ। সে এখন একটি প্রতীক।

চিং ক্য হ্লার চিকিৎসার জন্য দরকার মাত্র ১০/১২ লাখ টাকা। তার টাকা নেই তো কী হয়েছে! আপনার আছে, আমার আছে, আমাদের তো আছে। খাগড়াছড়িবাসী সহ দেশের লক্ষ কোটি মানুষের তো আছে অঢেল! শুধু দরকার একটুকু অনুভূতি মানবিকতা ও সহানুভূতি।

খাগড়াছড়ির অদম্য তারুণ্য এগিয়ে এসেছে মানবিক হৃদয় নিয়ে
আপনার সামান্য সহায়তা তিলে তিলে একত্র হতে হতে নিশ্চয়ই অসামান্য হয়ে উঠবে! চিং ক্য হ্লা’র জন্য টাকা জোগার হবে। মানবতাবোধ ও মানবিকতা আবার জীবনকে নাড়া দেবে। আমরা বিজয়ী হব, এই তো শুধু আশা আমাদের!

আমরা আপনাকে তাই পাশে পেতে চাই। আমরা হাত পাতছি। বলতা পারেন ভিক্ষা চাইছি, চাইছি করুণা। বা বলতে পারেন মানবিক অধিকার ও যথাযথ যৌক্তিক দাবি নিয়ে এসেছি। চিং ক্য হ্লা এখন শুধু সড়ক দুর্ঘটনায় আহত অপরিচিত অন্য কেউ নয়! সে এখন আমার আপনার দায় মানবিকতার দয়া ও দায়বোধ। সাহায্য করতে এগিয়ে আসুন। যোগাযোগ করুন, হাত বাড়িয়ে দিন!

সহায়তা করার জন্য সরাসরি যোগাযোগ করুন-
০১৫৫৬৭৭৩৮২৪,০১৫৫০৬০৫১৯৪, ০১৫৫৬৭৭২৬৬৬ নম্বরগুলোতে।

নিজ উদ্যোগে আপনার সাধ্যানুসারে আর্থিক সহয়তা প্রেরণ করুন
বিকাশ-

০১৮৩৯৮৪৯৩৬৫, ০১৮২৮৮৩৪৭৭২(ব্যক্তিগত) নম্বরগুলোতে।

অথবা ব্যাংক হিসাব নং-৫৪১২২০১০১২১৭৯, সোনালী ব্যাংক লিমিটেড,খাগড়াছড়ি শাখার নম্বরে।