ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

 

চিন্তা করছি এ বিষয়টি নিয়ে লিখবো কি লিখবো না। কিন্তু চিন্ত করলাম আমার একটি দায়িত্ব রয়েছে। তাই লিখছি। লেখার উদ্দেশ্য হচ্ছে- খাগড়াছড়ি জেলা পৌরসভার গোলাবাড়ি (আমার নিজের গ্রাম) গ্রাম হতে গত পড়শু(১৪ ফেব্রুয়ারি) রাতে ওয়ানতাফা নামে একজনকে প্রশাসনের মানুষ পরিচয় দিয়ে কে বা কারা তুলে নিয়ে গেছে। ওয়ানতা ফা তিনি যে জাযগায় থাকেন সে জায়গার পরিচিত নাম। তার অন্য নাম হয়তো রয়েছে। তিনি ভারতের পার্শ্ববতীর্ ত্রিপুরা রাজ্য হতে সেই গ্রামে এসে বসবাস করছেন। বাংলাদেশ থেকেই এক ত্রিপুরা মেয়েকে তিনি বিয়ে করে সংসার করছেন। জানা যায় তিনি একসময় বা হয়তো এখনো ত্রিপুরা রাজ্যের সশস্ত্র সংগঠন এনএলএফটি বা ন্যাশানাল লিবারেশন ফ্রন্ট অব ত্রিপুরা নামে সংগঠনের একজন সদস্য ছিলেন। তিনি কোন সংগঠনের সদস্য তা বাদ দিলাম। কিন্তু রাতদুপুরে এভাবে একজনকে শুধু আইনশৃংখলা রক্ষাকারী পরিচয় দিয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া এবং ৫০/৬০ ঘন্টা পেরিয়ে যাবার পরও তার কোনো হদিশ না দেয়া তা কোন মানবিক বোধ এর লক্ষন?
নাকি অন্য কোনো গল্প ফাঁদার জন্য এই কাজ করা হচ্ছে? দেখা যাক প্রশাসনের পক্ষ থেকে কী বলা হয়।