ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

গাদ্দাফি নামটি কয়েকটি বানানে লেখা হয়েছে বিদেশি পত্রিকাগুলোয় বিশেষ করে আরব দেশের পত্রিকায়। কেউ লিখেছেন কাদ্দাফি, কেউ লিখেছেন কাদাফি আবার কেউ লিখেছেন গাদ্দাফি। এ বিষয়ে এপি এর মধ্য প্রাচ্য বিষয়ক সম্পাদক ল কথে বলেছেন, আরবি ভাষার বর্ণ এবং শব্দকে ইংরজিতে আনা খুব কঠিন। প্রথাগত আরবি ভাষার আর কথা বলার মধ্যে পার্থক্যের কারণে উচ্চারণও নানা রকমের। তিনি বলছেন ক্বাফ এই উচ্চারণটি ইংরেজিতে নেই। এটাকে ক এর মত মনে হলেও ঠিক ক নয়। কাজেই কাদ্দাফি ঠিক বলা যাচ্ছে না । এটা ঠিক কাতার এর ক বর্ণটির মত নয়। আরবি ভাষায় একটা বর্ণই নানা ভাবে উচ্চারিত হয়। লিবিয়ায় এটা গ বলে উচ্চারিত হয়। আবার ঢ এটা দ এর মত উচ্চারিত হয়। অনেক জায়গায় থ এর মত উচ্চারিত হয়। আবার ফ বলে যা মনে হচ্ছে তা দ্বৈতভাবে উচ্চারিত হয়। আবার অনেকে ফ একবার উচ্চারণ করেন। ই টা ঠিক ই না ঈ এটা নিয়েও নানা উচ্চারণ রয়েছে। এ কারণে অনেকে বলছেন গাথ-থাবিই লেখা যায়। কিন্তু লিবিয়ার উচ্চারণ মেনে নিতে হলে দ টাই আসে।