ক্যাটেগরিঃ নাগরিক সমস্যা

সৌদি আরবে দীর্ঘ দিন যাবত বাংলাদেশী সহ অন্যান্য ভিনদেশী নাগরীকরা নানা সমস্যার সম্মুখিন হচ্ছেন। অন্যান্য দেশের লোকদের সমস্যাগুলো খুব বেশি জটিল না হলেও বাংলাদেশী নাগরিকদের জন্যে তা খুবই ভয়াবহ। এতে করে অধিকাংশ বাঙ্গালী বৈধ ভাবে এত বছর থাকার পরও অবৈধ হয়ে যাচ্ছেন। অনেক ক্ষেত্রে কফিলরাও এর কোন সুরাহা করতে পারছেন না। যেমন অনেক কফিল আছেন যারা বয়স্ক তারা বয়স্ক ভাতা পাওয়ার জন্যে তার নামে কোন শ্রমিক নেয় (শ্রমিক পলাতক বা শ্রমিক প্রয়োজন নেই ) অল্লেখ করে শ্রম অফিসে বালাক ( মামলার মতই ) দেন যা আকামা বানানোর সময় প্রত্যাহার করা যেত কিন্তু এখন তা আর করা যাচ্ছে না । এতে করে আকামা বানাতে না পেরে অনেকেই অবৈধ হিসাবেই থাকছেন। এতে করে অনেকে ছুটিতে বা একেবারেও যেতে পারছেন না। এছাড়াও বাঙ্গালীদের অন্যান্য অনেক সমস্যার সাথে নতুন করে যুক্ত হয়েছে আরেক বিড়ম্বনা। যাতে বলা হয়েছে যার আমেল কার্ড ( শ্রমিক কার্ড ) নায় তার আকামা ( রোড় পারমিট ) হবে না। যার জন্যে প্রয়োজন কোম্পানী বা দোখানের লাইসেন্স যা সম্ববত ৭৫% লোকের নায়। এতে করে গত ১৫ দিন যাবত অনেকে আকামা নবায়ন করাতে পারছেন না। এত সমস্যাকে সমাধান দিয়ে / পাশ কাটিয়ে আমরা দেশের অর্থনিতিকে সচল রাখতে চাইলেও এসব বিড়ম্বনা থেকে রক্ষার জন্যে আমাদের দেশের দূতাবাসের কোন তৎপরতা বা আন্তরিকতা দেখা যায় না। অনতিবিলম্বে এর কোন সুরাহা না হলে আমাদের প্রচুর আর্থিক ক্ষতির সম্মুখিন হতে হবে। যা রেমিটেন্স পাটানোর ক্ষেত্রে প্রভাব পড়বে।