ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

 

বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম। অনেক দিন পর ফুটবলে দর্শকপুর্ন স্টেডিয়াম দেখে খুব ভাল লাগলো। সিলেট বা খুলনায় উপচেপড়া ফুটবল দর্শক দেখা গেলেও বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে গত দশ-বারো বছরে কখনো গ্যালারি ভরতে দেখেছি কি না মনে পরছে না। অবরোধ, পেট্রলবোমাতঙ্ককে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে ফুটবলপ্রেমী দর্শকদের এমন আগমনকে অভিনন্দন!

বঙ্গবন্ধু কাপ সেমিফানালে শুরু থেকেই প্রচন্ড আক্রমন করে খেলতে থাকে। উল্লসিত দর্শকের ভেতরে প্রথম দশ মিনিট বাংলাদেশ যেভাবে প্রতিপক্ষ থাইল্যান্ডকে চাপিয়ে খেলছিল, দেখে চোখে পানি এসে গেছিল। অনেকদিন ফুটবলে বাংলাদেশের এই মারমুখি চেহারা দেখিনি। সত্যই দুর্দান্ত খেললো এমিলি মমিনুলরা!
হাফটাইমের কিছু আগেই প্রচন্ড উল্লাশের ভেতর বাংলাদেশ ১-০ গোলে এগিয়ে …।

null
বলটি গোলে ঠেলে দিয়েই আনন্দে ছুটছেন নাসির!

ফিফা অনুমদিত বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল। এই প্রথম ভাল স্পনসার ও ভাল অঙ্কে ফক্স টিভি টেলিভিশন ব্রডকাষ্টিং রাইট কিনে নিয়েছিল। একটি বড় আন্তর্জাতিক ফুটবল আসরে স্বাগতিক হিসেবে দেশকে ফাইনালে নিতে পারার জন্য ফেডারেশন ও খেলোয়াড়দের অভিনন্দন! শুভ কামনা বাংলাদেশ দলকে।