ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

পাপ বাপকেও ছাড়ে না। পাপের বোঝা পাহাড়সম হয়ে গেছিল।
জুরিখে গ্রেফতার হলেন ৭ ফিফা কর্মকর্তা।
যদিও অপরাধের ঘটনাস্থল জুরিখ, দোহা, রিও, জোহান্সবার্গ, বার্লিন, মিউনিখ, মাদ্রিদ, মস্কো।
কিন্তু ধরা পড়লো মার্কিন FBI এর হাতে। FBI এর হাত যে কত লম্বা বুঝা যায়। আমেরিকায় ফুটবল তেমন জনপ্রীয় না। এরপরও তারা মাথা ঘামায়, কারন তাদের কঠিন আর্থিক ইন্টেলিজেন্স নেটওয়ার্ক। মার্কিন এটর্নি জেনারেল বলেছেন, “কিছু ফিফা অফিসিয়াল ঘুশ খেয়েই যাছে, এর পরিমান ১০০ মিলিয়ন ডলারের বেশী”।

ভোর ছ’টা। স্থান— জুরিখের বিলাসবহুল পাঁচ তারকা Baur au Lac, Zurich হোটেল।
প্রেক্ষাপট— ফিফার বার্ষিক সভা, নির্বাচন দুদিন পরেই। পুরো হোটেল ঘুমে ডুবে। নিঃশব্দে বেশ কিছু পুলিশ ঢুকে পড়ে হোটেলে। বাকি হোটেল বোর্ডাররা তো ননই, ঘুমন্ত ফিফা কর্তারাও টের পাননি। FBI ও জুরিখ পুলিশ হোটেলের ফ্রন্ট ডেস্ক থেকে রুম নম্বর ও স্পেয়ার চাবি নিয়ে সোজা সংশ্লিষ্ট ৭ জন কর্তাদের রুমে ঢুকে চুলের মুঠি ধরে নামিয়ে প্রিজন ভ্যানে উঠায়, তবে গ্রেফতারকৃতদের ভেতর প্রেসিডেন্ট সেফ ব্লাটার নেই। এর আগে ফিফা সদর দফতরে হানা দিয়ে বিভিন্ন ডকুমেন্ট, কম্পুটার-কাগজপত্র জব্দ করে।

সুত্র – http://www.theguardian.com/football/2015/may/27/several-top-fifa-officials-arrested