ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

 

মহাজোট তথা বর্তমান আওয়ামি লীগ সরকারের তিন বছর পূর্তি উপলক্ষে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর জাতির উদ্দ্যেশে ভাষনের প্রেক্ষাপটে কিছু কথা না লিখে শান্তি পাচ্ছিলাম না । দেশের আর্থেনৈতিক চরম সংকটের মধ্যে একরাশ প্রতিশ্রূতির ফুলজুরিতে আশা করে এ জাতি এই সরকারকে একক সংখ্যা গরিষ্ঠতা দিয়ে ক্ষমতায় বসান । যাতে করে সরকার রাষ্ট্রপরিচালনায় কোন রূপ ব্যাঘাত না ঘটে ।

বক্তব্য অংশ : ০১
—““আমরা যেদিন সরকার গঠন করি সেদিন চালের দাম ছিল ৪০ থেকে ৪৫ টাকা কেজি ।আন্তর্জাতিক বাজারে অব্যাহত মূল্যবৃদ্দি সত্বেও আমরা তা কমিয়ে এনেছি।………। ১০০ টাকায় চাল কিনতে পারতো আড়াই থেকে তিন কেজি। এখন কিনতে পারে ১০ থেকে ১২ কেজি ।””

মাননীয় প্রধান মন্ত্রী কি বুঝাতে চেয়েছেন আমার বোধগম্য নয় । তিনি কি বুঝাতে চেয়েছেন বর্তমান চালের দর ৮ থেকে ১০ টাকা ?

বক্তব্য অংশ : ০২
—““ যানজট নিরসনে ৫৩০ টি নতুন বাস আমদানী করা হয়েছে । রাজধানীতে ১৪ টি স্কুল বাস ও মহিলা বাস সার্ভিস চালু করা হয়েছে । সড়ক দুঘটনা কমাতে ১৮ হাজার পেশাদার গাড়ী চালককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে ।”””

বাস আমদানী,মহিলা ও স্কুল বাস সার্ভিসের সাথে যানজট কমানোর সম্পর্ক কি ? আদো ঢাকায় যানজট কতটুকু নিরসন হয়েছে, তাহা তো ভূক্তভোগী আমরা ঢাকা বাসী ভাল করে অবগত ।

বক্তব্য অংশ : ০৩
—““রেডিও টেলিভিশন ও সংবাদপত্র যেকোন সময়ের তুলনায় পূর্ণ স্বাধীনতা ভোগ করছে।””

মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জনগণ তা হাড়ে হাড়ে দেখতে পাচ্ছে , কিভাবে বেসরকারী টেলিভিশন চ্যানেলে বিটিভির সংবাদ বাধ্যতামূলক সম্প্রচারিত হয়। কিভাবে দেশে টেলিভিশন চ্যানেল বন্ধ করে দেওয়া হয়। কিভাবে মুক্ত চিন্তার ফেইসবুক , ইউটিউব, ব্লগ সমূহ বন্ধ করে দেওয়া হয় । মাননীয় প্রধান মন্ত্রী কি বুঝাতে চেয়েছেন তারা তথা সরকার কিভাবে গণমাধ্যেমের উপর স্বাধীনভাবে প্রভাব বিস্তার করতে পারেন ।

বক্তব্য অংশ : ০৪
—-“““ সরকারের দায়িত্ব জনগনের জানমালের হেফাজত করা । আমরা আইন শৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে সক্ষম হয়েছি।”””

মাননীয় প্রধান মন্ত্রী অতীত কি ঘটেছে জনগণ তা ভাল করে জানে, আর জানে বলেই বর্তমান সরকার কে বিশাল ম্যন্ডেট দিয়েছে । নিবাচনী ইশতেহারে বলেছিলেন –““৫। সুশাসন প্রতিষ্ঠা: ৫.১ সন্ত্রস ও জঙ্গিবাদ শক্ত হাতে দমন করা হবে । যুদ্বাপরাধীদের বিচারের ব্যবস্থা করা হবে ।
৫.২ বিচার বিভাগের প্রকৃত স্বাধীনতা ও নিরপেক্ষতা নিশ্চিত করা হবে ।বিচার বহির্ভত হত্যাকান্ড বন্ধ করা হবে ।…………….। মানবাধিকার লংঘন কঠোর ভাবে বন্ধ করা হবে ।””””””

মাননীয় প্রধান মন্ত্রী আমার প্রশ্ন :-
১) সন্ত্রাস কি আদৌ বন্ধ হয়েছে?
২) বিচার বিভাগ কি প্রকৃত স্বাধীনতা ও নিরপেক্ষতা ভোগ করছে?
৩) মানবাধিকার লংঘন কি বন্ধ ?

মাননীয় প্রধান মন্ত্রী প্রতিদিন সংবাদপত্রের পাতা খুললে দেখা যায় হত্যা-গুম , নারী-নির্যাতন ,সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ইত্যাদি ইত্যাদি ইত্যাদি………। অতএব মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতি কে আপনি বাস্তবতার প্রতিফলন দেখান ।