ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

খবরের কাজ হাতে নিলে দেখতে পাই প্রতিদিন নারী ও শিশু নির্যাতনের খবর। ঘরে এবং বাইরে নির্যাতনের হার প্রায় সমান। নারী নির্যাতনের শিকার হয় কখনো পুরুষ কখনো বা নারী ধারা । কিন্তু কেন এই নির্যাতন এতে কি শুধু পুরুষ কিংবা নারী দায়ী আমাদের সমাজ ব্যবস্থা কি দায়ী নয়। আমাদের দেশে নারী নির্যাতনের বিরোধে অনেক আইন আছে কিন্তু তার সঠিক বাস্তবায়ন নেই। নির্যাতনের শিকার হওয়ার পরও নারী সঠিক বিচার পায়না। আবার অনেক আছে মানসম্মানের ভয়ে নির্যাতনকারী বিরোধে কোন আভিযোগ করেনা কারন সঠিক বিচার পাবেনা বলে। আসলে আইন করে নির্যাতন বন্ধ করা যাবেনা । নারী নির্যাতন বন্ধ করতে হলে পুরুষ বা নারী নয় আগে তাকে মানুষ হতে হবে তাহলে নির্যাতন বন্ধ করা সম্ভব। মানুষকে তার বিবেক বুদ্ধি আত্নয় সচেতন এবং মানুষ সত্তা কে জাগিয়ে তুলতে হবে। পুরুষকে পুরুষ বা নারীকে নারী নয় মানুষ হিসেবে তাকে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হতে হবে । নির্যাতনের বিরোধে মিডিয়াতে জন সচেতনতা মুলক প্রতিবেদন বা ডকুমেন্টারী প্রচার করতে হবে । নির্যাতনের পরে নয় নির্যাতনের আগেই নির্যাতন প্রতিরোধ করতে হবে তাহলে সমাজ থেকে নির্যাতন দুর হবে। আসুন আমরা নারী নির্যাতনের বিরোধে সামাজিক ভাবে আন্দোলন গড়ে তুলি এবং নারী নির্যাতনসহ সকল প্রকার নির্যাতন হতে সমাজকে মুক্ত করি।