ক্যাটেগরিঃ ব্লগালোচনা

 

পাঠকদের নিকট প্রথমেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি কিছু অবান্তর প্রশ্ন উত্থাপন করার জন্য। কিন্তু প্রশ্নগুলোর সঠিক না হলেও কাছাকাছি কোন উত্তর আমার জানতে খুব ইচ্ছে করছে। সকলের নিকট অনুরোধ আমার আলোচ্য বিষয়গুলো আরো স্পষ্ট করার জন্য এখানে বিস্তারিত আলোচনা করবেন।
১. ব্লগ কী?
২. সিটিজেন জার্নালিজম কী?
৩. বিডিব্লগ কী সিটিজেন জার্নালিজমের নিয়মনীতি মেনে চলে?
৪. এখানে যারা লেখেন তারা কী সিটিজেন জার্নালিজম সম্পর্কে অবগত?
৫. ব্লগের মালিকানা আর লেখার মালিকানার পার্থক্য কি আমরা বুঝি?
৬. ভবিষ্যতে আমাদের ও ব্লগ কর্তৃপক্ষের করণীয় কী?

১. ব্লগ কী?
এ বিষয়ে আমারা সবাই কমবেশি অবগত।
সংক্ষেপে জানার জন্য এখানে দেখুন
http://blog.bdnews24.com/help

বিস্তারিত নিচের লিংকে
http://www.somewhereinblog.net/blog/fahmidulhaqblog/28929863

২. সিটিজেন জার্নালিজম কী?
নিচের লেখাগুলো দেখুন
সিটিজেন জার্নালিজম নিয়ে অল্পস্বল্প গল্প – blog.bdnews24.com/laboni/26798
সিটিজেন জার্নালিজম বিষয়ে ব্লগারদের ধারণা শীর্ষক ওয়ার্কশপ!!!! – http://blog.bdnews24.com/Charumannan/9993
জরিপ পোস্ট: আপনি কতটা সিটিজেন জার্নালিস্ট? – http://blog.bdnews24.com/blogposhok/23879

৩. বিডিব্লগ কী সিটিজেন জার্নালিজমের নিয়মনীতি মেনে চলে?

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম কর্তৃপক্ষ তাদের নিউজ সাইটের সাথে ব্লগ কথাটি যুক্ত করে সাথে সিটিজেন জার্নালিজম ভিত্তিক শ্লোগান লাগিয়ে ২০১১ সালে যাত্রা শুরু করে। এখন প্রশ্ন হলো ব্লগ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম কী তাদের শ্লোগান মেনে চলে? এ ক্ষেত্রে আমার মনে তারা মেনে চলার চেষ্টা করে, কিন্তু এখনও মেনে চলতে পারেনা। এই না মানতে পারার জন্য দায়ী কর্তৃপক্ষ যেমন, তেমনি দায়ী আমরা ব্লগাররাও।

৪. এখানে যারা লেখেন তারা কী সিটিজেন জার্নালিজম সম্পর্কে অবগত?
আমার মনে হয় অধিকাংশ ব্লগার সিটিজেন জার্নালিজম সম্পর্কে অবগত নয়। ব্লগারদের সিটিজেন জার্নালিজম সম্পর্কে অবগত করাতে না পারাটাই আমার মনে হয় বিডিব্লগের সবচাইতে বড় ব্যর্থতা।
এ ক্ষেত্রে অল্প সময়ের মধ্যে সিটিজেন জার্নালিজম সম্পর্কে মানুষের মধ্যে আগ্রহ সৃষ্টিই সম্ভবত বিডি ব্লগের সবচাইতে বড় সফলতাও।
কথাগুলো বিপরিত মুখী হয়ে গেল, তাই নয় কী?

হ্যাঁ, কিছুটা তাই হয়েছে, তবে আমার নিকট এটাই সত্য মনে হয়েছে।
একটি উদাহরণ দেই, এই দেখুন পোস্টটি – http://blog.bdnews24.com/MAHIZAMAN/146057

এখানে লেখক ইচ্ছে করলেই শুধু ভাষা পরিবর্তন করে অথবা আর কয়েকটি শব্দ যোগ করে এই লেখাটিকে সুন্দর খবরে পরিনত করতে পারতেন। হয় লেখতেন পর্যটক শুন্য নীলগিরি অথবা দেশী-বিদেশী পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় স্থান নীলগিরি। আমার ধারণা শুধু ব্লগের মূল শ্লোগান সম্পর্কে না জানার কারণে তিনি তা করতে পারেন নাই।
আবার আমার এই পোষ্টটি দেখুন – http://blog.bdnews24.com/MottalibDarbari/135228

এখানে শুধু কয়টি নৌকা ঘাটে অপেক্ষমান, কিন্তু লেখাটা পড়ে দেখুন এটিকে খবর বানানো হয়েছে।
ইচ্ছে করে ব্লগের চরিত্র অনুযায়ী লেখার চেষ্টা করেছি। আমার নিজের অনেক পোষ্টও ব্লগের চরিত্রের সাথে মিলে না।

৫. ব্লগের মালিকানা আর লেখার মালিকানার পার্থক্য কি আমরা বুঝি? কেন ব্লগ ছেড়ে চলে যাই?
ব্লগের মালিকানা আর লেখার মালিকানার পার্থক্যটা বোধ হয় আমরা অনেকেই বুঝিনা। তাই না বুঝেই মাঝে-ব্লগকে নিজের মনে করি। পরিণতি হিসেবে কিছুদিন পর ছোট-খাটো কারণে কষ্ট পেয়ে ব্লগ ছেড়ে দেই বা অভিমান করে বসে থাকি। এ ক্ষেত্রে আমার মনে হয় ব্লগটাকে নিজের না ভেবে দেশটাকে নিজের মনে করে, সেই দেশের মানুষের স্বার্থে কাজ করার সুযোগ দানকারী হিসেবে ব্লগ কর্তৃপক্ষকে বিবেচনা করা উচিত। সে অর্থে আমরা যারা ব্লগে লেখি তারা সবাই বিনা পারিশ্রমিকে দেশের জন্য নিবেদিতপ্রাণ। একজন নিবেদিতপ্রাণ ব্যক্তি কী কখনও অন্যের উস্কানিতে ঐ স্থান ত্যাগ করতে পারে?

৬. ভবিষ্যতে আমাদের ও ব্লগ কর্তৃপক্ষের করণীয় কী?
পরিশেষে বলব, যে কোন নতুন ধারণা বা বিষয় সমাজ সহজভাবে নেয় না। বিডিব্লগের ক্ষেত্রেও খুব সহজে সমাজ এটাকে গ্রহন করেনি। এর কারণ নানাবিধ। আমার মতে সব চাইতে বড় কারণ আমাদের সমাজের প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী সংবাদ লিখবেন সাংবাদিকরা, সাধারন মানুষের সেখানে প্রবেশাধিকার নেই।

বিডি ব্লগ আমাদের মত কিছু মানুষকে সেখানে প্রবেশাধিকার দিয়ে নতুনভাবে পথ দেখাতে পেরেছে, আমার বিশ্বাস এ পথ ভবিষ্যতে সমাজ এবং মানব উন্নয়নে খুব কার্যকর ভূমিকা রাখবে।
সংখ্যায় কম হলেও ইতিমধ্যে এমন কিছু ঘটনা সমাজের সামনে চলে এসেছে যা প্রচলিত রীতিতে হয়ত আসত না।

আসুন আমরা সবাই মিলে আগামী বছর বিডি ব্লগকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাই এ হোক প্রত্যাশা।