ক্যাটেগরিঃ চারপাশে

আফগানিস্তানে খুন হওয়া ব্র্যাক কর্মকর্তা মহিউদ্দিন হেলাল

ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া উপজেলা সদর থেকে ১৫ কিলোমিটার দূর বেতবাড়ী গ্রামের মৃত মোসলেম উদ্দিন মাস্টার ও মা আমেনা খাতুনের ৫ পুত্র ২ কন্যার মধ্যে বড় সন্তান মহিউদ্দিন হেলাল (৪৫)। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চতর শিক্ষা শেষে ১৯৯৮ সালে তিনি ব্র্যাকে চাকুরীজীবন শুরু করেন। তিনি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন কুমিল্লা জেলার হুমনা উপজেলার রামনগর গ্রামের মরহুম আব্দুর রউফ ওরফে লাল মিয়ার কন্যা পারভীন আকতারের সাথে। প্রায় ৮ বছর যাবৎ আফগানিস্তানে ব্র্যাকে কর্মরত ছিলেন। এর মধ্যে ঢাকা ও রংপুরে ব্র্যাকের কর্মকর্তা হিসাবে ১ বছর দয়িত্ব পালন করেন। সর্বশেষ বাংলাদেশ থেকে আফগানিস্তান তার কর্মস্থলে যোগদান করার জন্য দেশ ত্যাগ করেন ২০১১ সালে ৫ জুন। তার ছেলে ইসফাক আহমেদ স্থানীয় মাঝিরঘাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ শ্রেণীর ছাত্র। মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস মোহনার বয়স ৩ বছর।

আফগানিস্থানে নিহত ব্রাক কর্মকর্তার স্ত্রী পারভীন আকতার,ছেলে ইসফাক আহমেদ ও মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস মোহনা।

আফগানিস্থানে নিহত ব্রাক কর্মকর্তার স্ত্রী পারভীন আকতার,ছেলে ইসফাক আহমেদ ও মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস মোহনা এর সাথে মহিউদ্দিন হেলালের মা।

আফগানিস্তানে খুন হওয়া ব্র্যাক কর্মকর্তার গ্রামের বাড়ি