ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

বৃষ্টির মাঝে মানুষের অবিরাম ছুটে চলা, ছুটতে হবে তাই! চিত্র বিচিত্র মানুষ, বিভিন্ন অনুভুতি, কেউবা হাসছে, কেউবা ভিজছে, কারো চোখে ভালবাসা, কারো বা ঘৃনা! কারো আছে পূর্ণতা, কারো চোখে শুন্যতা! সব ছাপিয়ে ভেসে উঠে বৈষম্মের সামাজিক দৈন্যতা!

মানুষের মৌলিক চাহিদা যদি পূর্ণ না হয়, তবে এ রাষ্ট্র কেন, কেনইবা সমাজ? কি কাজে এই স্বাধীনতা? কাদের পিছনে আমরা জয়ধ্বনি করছি শতবছর ধরে?

বর্ষা আর কান্নার জল মিলেমিশে সব একাকার! জ্ঞান এবং সম্পদ আহরণ এবং সুষম বন্টন এখন অতি জরুরি! নাহয় দেখব জাতিসত্তার অস্তিত্বের সংকটের সেই ভয়াল বিস্ফোরণ!

উগ্র ডানপন্থী দল জামাত ই ইসলামী যেভাবে মধ্য ডানপন্থী বিএনপি কে গ্রাস করেছে, ঠিক সেভাবেই উগ্র বাম ঘরানার রাজনীতিবিদরা সেকুলার চেতনার আওয়ামী লীগ কে গ্রাস করেছে! উগ্র ডান এবং উগ্র বাম বিপরীত মেরুর ধারনা হলেও, রাজনীতির ঘূর্ণায়মান বৃত্তে, তাদের অবস্থান পাশাপাশি! পাঁচ যুগেরও বেশী পুরনো দল আওয়ামী লীগ এর সংগ্রাম এবং অর্জন আজ যতটা হুমকির মুখে, ততটা বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুর পরে, প্রায় দুই দশক ক্ষমতার বাইরে থেকে, মিথ্যা অপবাদ ও নির্যাতনের স্বীকার হয়েও ছিলনা!

উগ্র ডানপন্থী দল জামাত ই ইসলামী ১৯৭১ এ পরাজয়ের প্রতিশোধ নিতে সিন্দাবাদের ভুতের মতো বিএনপি এর কাঁধের উপর যেভাবে সওয়ার হয়েছে, তেমনি ১৯৭১ এর পরে সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশ এ বঙ্গবন্ধু সরকার কে সশস্ত্র তথাকথিত বিপ্লবের দ্বারা উৎখাত করতে চাওয়া উগ্র বামপন্থী রাজনীতিকরা আওয়ামী লীগ কে ঠেলে দিয়েছে খাদের কিনারায় !

আর সেই সাথে বাংলাদেশের বৃহৎ দুটি দলের সাথে নীতি নির্ধারণই পর্যায়ে সামনের সারির নেতা সেজে বসে আছেন ব্রিটিশ, পাকিস্তান, মুক্তিসংগ্রাম কালীন তথা পরবর্তী সব সরকারের গুণগ্রাহী, তল্পিবাহক আমলারা !

জনতার কাতার থেকে নেতার সৃষ্টি ? সে আশাতে গুঁড়েবালি!

জনতার ক্ষমতায়ন, গনতন্ত্র, মুক্তিসংগ্রাম, বাঙ্গালী জাতীয়তাবাদ কিংবা বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ, সংখ্যালঘু নির্যাতন, জঙ্গীবাদ, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা – সবই ছেলে ভুলানো খেলা ! আজ তাই –

কালের মাঝে দাড়াই,
মহাকাল দেখব বলে;
আলোর মাঝে দাড়াই,
আধার কে ছোব বলে;
টেকনোলজি আর থিওলজি
মুখোমুখি দাড়িয়ে;
দৃষ্টি পথে হয় দৃষ্টিভ্রম,
স্পর্শের অসাড় অনুভুতি!
আলো আধারিতে তাই অপেক্ষায়
একজন হোরেস কিংবা জুভেনাল এর!

বিভ্রান্ত জনগন, বিভক্ত জাতি, বিভক্ত মূল্যবোধ – কাণ্ডারি ? হুঁশিয়ার!