ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

প্রবাদটা মনে হয়- যথার্থই। ‍”সৎ সঙ্গে স্বর্গ বাস – অসৎ সঙ্গে সর্বনাস”। কি সর্বনাশই না করলো। দীর্ঘ ১২ মাস ঘরে বসে কুট কুট করে নষ্ট করলো হাজারো মানুষের বাপ দাদার কষ্টের ভিটা বাড়ীর কাগজ পত্র, এই কাগজপত্র কি পাবে ফিরে? পথে বসালো এক একটা পরিবারকে। এই সর্বনাশা ইদুরকে কি দিয়ে মারবেন? কি শাস্তি দিবেন ? কোন ধরনের মহা ঔষধ প্রয়োগ করিবেন?book-thief২/৭/২০১৪ইং এবং ৪/৭/২০১৪ইং তারিখে রাতের বেলায় বিশ্বকাপের খেলা চলা কালিন, খচ্ খচ্ শব্দ পেয়ে বাহির হয়ে দেখি। সর্বনাশ আমার শখের পেয়ারা গাছের তিনটা ফল সহ হাফ ড্রামের মাটি সব উপড়ে ফেলেছে ইদুর। তৎক্ষনাৎ কিছুই করতে পারলাম না। কিন্তু–পরের দিন, আধুনিক ইদুর কিলার,ঘাম,খাঁচা সহ যত প্রকার ব্যবস্থা আছে নেওয়া হল। সন্ধ্যায় তেমন ফলাফল না পেলেও রাত ২:০০ ঘটিকার পরে ঠিক মতাই কাজ হলে!  পর পর দুই দিন দুইটি- খাঁচার ধরা পড়লো অনেক বড় লেজ সহ প্রায় নয় ইঞ্চি লম্বা ইদুর। আমাকে দেখেই ফু ফু শব্দ করতে থাকলো। আর আমি রাগে- ইদুরকে বলতে লাগলাম, ঠিক আছে সকালে হবে তোমার সাথে দেখা। রোজার দিনেই এমনিতেই ঘুম থেকে উঠতে একটু দেরী হয়। তাই নানতীকে ইদুর না দেখিয়েই তার উপর উত্তপ্ত গরম পানী ঢেলে দিই, এবং তার দেহ অবসান হয়।

ঠিক তেমনি ভাবে যেহেতু- সে প্রতারণা করেছে, নষ্ট করেছে যার কোন হিসাব নেই। কিন্তু যে ইদুর দেখিয়ে দিয়েছ কুট কুট করে কাটার জন্য, যে ইদুরের মহান নেতা, মহান বুদ্ধিদাতা, ত্রানকর্তা, আশ্রয়দাতা। তাদের শাস্তি কি শুধুই জেল খানা বা যাবত জীবন কারা দন্ড?

এক্ষেত্রে বলবো- আমাদের পুলিশ বিভাগ, গোয়ান্দা বিভাগ, সিআইডি, আরো কত কি বিভাগ আছে, যারা মোটেই দেশের জন্য, দশের জন্য, কাজ করে না। তা আছে শুধু- টাকা টাকার ধ্যানে। যদি তাই না হতো তাহলে সাগর-রুনি হারিয়ে যেত না কাগজের ভারে। কোন না কোন ক্লু তারা পেতেন।

একদিন ধর্মের ডোল বাজবেই। আগামীতে সত্যের জয় অবধারিত। তখন কিন্তু- —!