ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা, ব্লগ সংকলন: সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ড

 

সাংবাদিকরা যে কোন দেশের সত্য-কথক, রাষ্ট্রের সমাজের জন্য এরা অতি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। নীতি-নির্ধারণে সহায়ক হয় তাদের লেখনি-বক্তব্য। সাগর-রুনি ছিল উক্ত গোত্রেরই যোগ্য প্রতিনিধি। তাদেরকে হত্যা করা হয়েছে নির্মমভাবে। এই হত্যা কাণ্ড কারা ঘটিয়েছে, তাদেরকে বিচারের আওতায় আনা জরুরি। এ কাজ পুলিশের কাজ। গোয়েন্দা বিভাগের কর্তাদের কাজ। তারা এখন হাত কচলাচ্ছে। হত্যাকারীদেরকে খুঁজে বের করতে পারেনি আজও। এখন এই ভার দেওয়া হয়েছে র‍্যাবের উপর। পুলিশবাহিনী কেন ব্যর্থ হইল হত্যাকারীদের সনাক্তকরণে? এই তথ্য কি আমজনতা কখনও জানতে পারবে? র‍্যাব কি খুঁজে বের করতে পারবে আসল হত্যাকারীদেরকে? নাকি জজ মিয়া কাহিনীর নাটক হবে? আমারা চাই এই হত্যার বিচার হোক।

সাগর-রুনির রক্তের রঙে শুরু হতে যাচ্ছে
‘রোড পেইন্টিং’
তারিখ: ২৭শে এপ্রিল, শুক্রবার, ২০১২
সময়: বিকেল ৪টা
চারুকলা ইনস্টিটিউট থেকে জাতীয় জাদুঘর এর সামনের রাস্তা।

আসুন এই প্রতিবাদে আমরা সামিল হই।