ক্যাটেগরিঃ প্রকৃতি-পরিবেশ

ক’দিন ধরেই আকাশে ভীষন মেঘ করছে। খবরে শুনেছি সারাদেশে না’কি কালবৈশাখীর লক্ষন দেখা যাচ্ছে! বগুড়ার আকাশে মাঝে মাঝে ভীষন মেঘ করে। কালবৈশাখীর মেঘলা আকাশ দেখে হেমন্ত মুখোপাধ্যায় এর গান মনে পড়ে,

এই মেঘলা দিনে এক
লাঘরে থাকেনা তো মন
কাছে যাবো কবে পাবো
ওগো তোমার নিমন্ত্রণ।

আজ মেঘলা দিনের সকালে সেই আমার বন্দি কথাটাই মনের মধ্যে পাখা ঝাপটে মরছে!

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘বৃষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর’ কবিতার কিছু অংশ মনে পড়লো –
মেঘের খেলা দেখে কত
খেলা পড়ে মনে,
কত দিনের লুকোচুরি
কত ঘরের কোণে।
তারি সঙ্গে মনে পড়ে
ছেলেবেলার গান —
‘বিষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর, নদেয় এল বান।’

মনে হলো, মাথার ওপর এই বুঝি আকাশ ভেঙে পড়ে!

‘মেঘ বলতে আপত্তি কি?’ জয় গোস্বামীর এই কবিতাটা আজকে তুমুল ভাবে আমার মনে পড়ছে,

মেঘের ‘পরে মেঘ জমেছে, আঁধার করে আসে।

আসছে কালবৈশাখীর দিনগুলোতে সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন, এই প্রত্যাশা।

আলোকচিত্রী: নাভিদ ইবনে সাজিদ নির্জন