ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

 

চলছে গাড়ি সিসিমপুরে,চলছে গাড়ি সিসিমপুরে !! বাহ্ ! এভাবে চলছে দেশ,নাহ! বিষয়টা আমার বলা মানায় না স্টুডেন্ট মানুষ তাই শিক্ষা নিয়ে না হয় আজ কিছু লিখি কিন্তু বলে রাখি ফলাফল আশা করা ঠিক হবে না। ব্যাখায় যাই কিছু টা (আবালের যুক্তি কিছুটা খাড়া করি আর কি !)

দেখুন গত টার্মে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মোবাইল ফোন এর মাধ্যমে কথা বার্তা উপর ভ্যাট আরো বাড়াতে চায় তখন আমার মনে আছে মাননীয় খালেদা জিয়া কোনো জনসভায় বলেছিলেন এই সরকার মানুষের কথা বার্তা কেড়ে নিতে চায়, তারা কথা বার্তা বন্ধ করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায় তাই তারা মোবাইল ফোন এর মাধ্যমে কথা বার্তা উপর ভ্যাট বসাতে চায়। কিন্তু পরে এই ভ্যাট বিসয় বাদ পরে যায় আমার মনে হয় এই নিয়ে যাতে মাননীয় খালেদা জিয়া আর রাজনীতি করার সুযোগ না পাই।

আর আজ ২০১৫ মাননীয় অর্থমন্ত্রী তার বাজেট ঘোষণায় এক্কেবারে এমন কিছু নাই যার উপর ভ্যাট না দিছে, বলার কেও নাই বলব কেডা! কথা কইলেই জেলে। একসময় ভাবতাম একটা দল ক্ষমতায় থাকলে হইব এই বিরোধীদল লাগব না কিন্তু বিশ্বাস করেন আমার জন্মের পর আজ বুইঝতাচি কিল্লাই দরকার বিরোধীদল হয়ত আজ হরতাল ভুলে গেছি কিন্তু ভ্যাটময় জীবন শুরু হবে এবার।

ছোটোকালে স্কুলের ইউনিফর্ম পরিধান আমাদের কি শেখায়? আমরা শিক্ষার ক্ষেত্রে সবাই এক।আমাদের ভিন্ন কোন জাত নেই, কোন ধর্ম নেই, নেই কোন অর্থনৈতিক ভেদাভেদ। কিন্তু আজ এই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে কল্যানে আমরা আজ কি জানতে পারি? বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা গ্রহণ কর আর ভ্যাট দেও। বাহ! কি নিয়ম দেশ একটা নিয়ম কি ২টা তাইলে ছোটোকালে স্কুলের ইউনিফর্ম বাদ দিয়ে এখন থেকেই আমরা এই প্রতিযোগিতায় নামতে পারি। আর যদি না পারি তবে কেন সরকার এই সব উত্তর- দক্ষিন-পূর্ব-পশ্চিম বিশ্ববিদ্যালয়গুলো চালানোর অনুমতি দিল, আর ভ্যাট নিয়ে শিক্ষাকে প্রশ্নবিদ্ধ করলো?

এই আওয়ামী লীগ সরকার চেয়েছিল শিক্ষাকে ফ্রি করতে আজ ভুলে গেছে তারা, তারা আজ পারত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্নীতির উপর করা নজরদারি করতে প্রয়োজনে তারা বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিয়ে আধা সরকারি করুক এতে তাদের লাভ ছাড়া লস নেই প্রয়োজন হচ্ছে না ফালতু মানের নিম্ম মানের কিছু বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করা (এখন ও কিছু আছে যা একটু তাকালেই পাবেন) এবং নিম্ম মানের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় প্রয়োজনে বন্ধ করে দিক, মনে রাখতে হবে এটা বঙ্গবন্ধুর দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কিন্তু তারা আজ শোক দিবস ছাড়া এই বিষয় মনে রাখে না তাও আজ কাল এই দিনে যেভাবে সেলফি আর বিস্তল প্রদর্শন শুরু করছে তাতে আগামি ২-৩ বছর পর থাকবে কিনা বলা যাচ্ছেনা।

প্রিয় সরকার সবশেষে অনুরোধ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপর ভ্যাট প্রতাহার করুন,এবং বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মালিকদের শিক্ষা বাণিজ্যের লাগাম টেনে ধরুন। যত্রতত্র বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদন বন্ধ করুন।