ক্যাটেগরিঃ স্বাধিকার চেতনা

ভাবতে অবাক লাগে, এখনো তারা নিজেদেরকে এই দেশের নাগরিক বলে…নিজেদের অপরাধ শিকার করে না। যদি কেও শিকার করে, তবু বলে, আমাদের কে ক্ষমা করে দেওয়া হয়েছে…তাদের একটা কথার নমুনা আপনাদের কে দেই :::

“সবচেয়ে বড় কথা যেই দেশের সংবিধান, আইনে জামাত শিবির দেশের নাগরিক, স্বাধীনতা যুদ্ধে স্বাধীনতার বিপক্ষে অবস্থান করার পরপরই স্বাধীনতাকে মানিয়া লইয়া রাজনীতি করিয়া আসিতেছে এবং ৪০ বছরে তারা স্বাধীনতার বিপক্ষে একটি কাজ করিয়াছে এমন প্রমাণ নাই তাহাদেরকে নিয়ে আজ হঠাৎ কিছু লোকের লাফালাফি শুরু হইয়া গিয়াছে।
জামাত কী একাই স্বাধীনতার বিপক্ষে ছিল। কিন্তু একবারের তরেও অন্য দলের নাম এদের মুখে আসিতেছেনা। জামাতকে আসলে তারা ভীষনভাবে ভয় পাইতেছে মনে হইতেছে। আধার রাতে পথ চলিতে অনেকে যেমন গান ধরিয়া ভয় দূর করিবার চেষ্টা করিয়া থাক সেই গান যতই বেসুরো হোক না কেন, এই লোকগুলোর মনেও জামাত ভীতি ঢুকিয়া গিয়াছে বোধ হয়। তাই মনের ভয় তাড়াইতে এইসব বেসুরো গান, বেআইনী কথা, বেফাস মন্তব্য, জংলীপনার প্রকাশ।”

সাধীনতা কোনও একক বেকটির কষ্টের ফল নয়, জানিয়েকটা চুক্তির মাধ্যমে কিছু রাজাকার কে ক্ষমা করা হয়েছিল,কিন্তু সকল দেশেই প্রয়োজন অনুসারে চুক্তি বাতিল অথবা পরিবর্তন হয়,বেতিক্রম আমাদের দেশ।

আজকে তারা আমাদেরকে জঙ্গলী বলার ক্ষমতা পেয়েছে, শুধু আমাদের কিছু ভুলের কারণে।নারায়ণগঞ্জে ঘটে জবা পুলিশের উপর হামলার দায়িত্ত কী আপনার নিবেন না? নাকি আপনার করেনি নাই ?

শিবিরের কাহিনী সবাই জানে…ছোটবেলায় শিবিরের রগ কাটার কাহিনী শুনতাম, বড় হয়ে নিজ চোখে দেখার দুর্ভাগ্য হল। শিবিরের আর কিসু নির্মম হত্তর কথা আসে এই লিঙ্ক এ

প্রথমে শিবির, তারপর হুজি সহ বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠন…71 এর আগে শুরু হওয়া বাঙালি হত্তর রাজনীতি এখনো থেমে নাই। এক সময় তারা শুরু করেছিল দেশের বুদ্ধিজীবীদের হত্তা করার কাজ। মনে আছে হুমায়ন আজাদ,আহসানউল্লাহ মাস্টার,শাহ এসএম কিবরিয়ার কথা?

আমরা ভুলতে পারিনা 2006 এর অক্টোবরের 28 তারিখ..

তাদের মহান আল্লাহ কত ভালবাসেন যে তাদের সদসসরা মারা যাবার পর তার মাকে নিয়ে তাদের থাকার স্থান বেহেস্ত ঘুরে আসার সৌভাগ্য দিয়েছেন

জামাত মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করতে পারে নাই কিন্তু তারা মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যায় জড়িত ছিলেন না(!)

শিবিরের এক লোক ব্লগে প্রশ্ন করেছেন, শিবিরের কী দোষ,জামাত করলেই মাইর খেতে হয় কেন….

শিবিরের ভাবনা তাদের সাবেক সভাপতির বক্তব্য দিয়েই প্রকাশিত হয়, নতুন করে কিছু বলার নাই।

শিবিরের সভাপতির আরেকটা ইন্টারভিউ

আরেকটা

ইসলামী ছাত্রশিবির একমাত্র সংগঠন,যারা সন্ত্রাস না 😀 তালেবান কী রে ভাই ??

রাজাকারের বাচ্চার কথা শুনেন 😀

খালেদা জিয়া —জামাতকে কোন হিসাবে শরিক কেরেছেন তা আমার ছোট্ট মস্তিষ্কে ঢুকবে না। জামাতের কথা জানেন না এমন বাঙালি কোথাও নাই….কিন্তু আমাদের জানতে হবে, এর এখন অনেক শক্তিশালী,প্রথম থেকেই গোছানো,সুপরিকল্পিত ভাবে তারা আমাদের দেশের ক্ষতি করে যাচ্ছে। এখন ইন্টারনেটের বাবহারের মাধ্যমে তারা নিজেদের কে তুলসিপটা জহির করার চেষ্টা করছেন। আর যাই করেন….কুমিরের কান্না শুনে কুমিরের পুকুরে ঝাপ দিবেন না। আল্লাহ কাকে বেহেস্ত দিবেন, কাকে দোজখ দিবেন, সেইটা আমাদের কর্মের উপর নির্ভর করবে। জামাতের কোনও নেতার ক্ষমতা নাই বলে দেবর যে তুমি আমাদের কর্মী হয়ে মরলে শহীদ হবা :@ তাই যদি হতো, তাইলে আগে নিজের মরতো :@ নিজের জানের মায়া তাদের কাছে আছে।

আমাদের ফেসবুক পেজ এ আপনার আমন্ত্রণ