ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

Nizami_1

এই সরকারের অনেক ব্যর্থতা, অনেক অপারগতা আছে। অনেক কিছু করার ছিল, করতে পারেনি। অনেক কিছু করা উচিত না তবুও করেছে। ছাত্রলীগ সহ অনেকের খারাপ কর্মকাণ্ড যা না করলে ভালো হতো। আসলে আমরা যারা জনগণ, তাদের চাহিদা খুব বেশি না। আমরা পরিশ্রম করতে পারি। ভালো কাজে উদ্যোগী হলে পারি। আমাদের পরিবার, আমাদের সমাজ, আমাদের আয়-উপার্জন নিয়ে আমরাই ভাবি। সরকারের কাছে আমাদের চাহিদা সামান্য। আমরা যে উপার্জন করি তা নিয়ে যেন ভালোভাবে জীবন যাপন করতে পারি। আমার টাকা বা সম্পদ অন্য কেউ যেন এসে নিয়ে না যায়। ঘর থেকে বের হয়ে কাজ শেষে আবার যেন ঘরে ফিরতে পারি, জানমাল এর নিরাপত্তা ও সামান্য নাগরিক সুবিধা। গত কয়েক বছরে আমরা সব কিছু মোটামুটি গুছিয়ে নিয়েছি। পরিশ্রম করে যাচ্ছি, চলার গতির ১ টা পরিবর্তন চলে এসেছে, ঠিক তখনি আবার বাধা। আমার গাড়ি নিয়ে আমি যাব আমার কাজে তাতেও বাধা। মানে অবরোধ। কেন এই অবরোধ? কার জন্য এই অবরোধ? যারা অবরোধ ডাকছেন তারা কি মানছেন? মানছেন না, তাহলে কাকে মানতে বলছেন? বলতে পারেন মানছেন। তাহলে তাদের নেতা রিয়াজকে কেন গাড়িসহ রাস্তায় পাওয়া গেল? মানা বা না মানার হিসাব বাদ দিলাম। আমরা এরূপ আন্দোলন চাইনা, যেখানে গাড়ি পোড়ানো হয়, যেখানে পেট্রোল বোমা মারা হয়। জনগণ এর স্বার্থে আন্দোলন করলে জনগণ নিয়ে রাস্তায় বসে পড়েন। পুলিশ কতজন কে মারবে, আর কত জনকে জেলে নেবে?

জনগণ কি যাবে?
বিএনপি-জামাত এর বর্তমান আন্দোলনে কি জনগণ আগ্রহ দেখাবে? এই সরকার যা করছে, তার থেকে কি ভালো বিকল্প হতে পারবে বিএনপি-জামাত? যদি জনগণ সেটা ভেবে থাকে তাহলে এই সরকার সরাতে ১ দিনই যথেষ্ট। আর বর্তমানে যে আন্দোলন চলছে তাতে যদি সরকার পতন হয়, তাহলে কোনো সরকারই টিকতে পারবে না বেশি দিন!!