ক্যাটেগরিঃ জানা-অজানা

বিশ্বের সবচেয়ে দামী দশটি খাবারের তালিকা

মীর নিয়াজ মোর্শেদ

রেষ্টুরেন্ট ম্যানেজার,বেল্লাজিও লিমিটেড
তথ্যসূত্র-ওয়েবসাইট
file-page1
১০-মাত্তাকে/মাতসুতাকে মাশরুম (৮০,০০০/-)
বিশ্বের অন্যতম দামী এবং দূর্লভ মাত্তাকে মাশরুম । জাপান,কোরিয়া,চায়না‍‍,আমেরিকা,কানাডা,সুইডেন এবং ফিনল্যান্ডে পাওয়া যায় এই মাশরুম।তবে খুব বেশী উৎপাদন হয়না বলেই এর দাম এত বেশী।জাপানে বছরে মাত্র এক হাজার টনের মত উৎপাদিত হয়। মাত্তাকে/মাৎসুতাকে মাশরুমের উৎপাদন কম হবার কারনেই দাম এত বেশী।

৯-ব্যাগেল-ওয়েষ্টিন হোটেল,নিউ ইয়র্ক সিটি (৮০,০০০/-)
আপনি হয়তো ভাবতে পারেন শুধু মাত্র একটি ব্যাগলের দাম কি করে এত বেশী হয়?বেশী দামের কারন হল এর কিছু দামী ও দূর্লভ উপকরন। ওয়েষ্টিন হোটেল,নিউ ইয়র্ক সিটির প্রধান শেফ ফ্রাংক তুজাগুয়্যের অসাধারন সৃষ্টি এই ব্যাগেলটি তৈরি হয়েছে হোয়াইট ট্রাফেল,ক্রিম চিজ,গোজি বেরী সম্বৃদ্ধ রিজলিং জেলী এবং স্বর্ন পাতা দিয়ে।তবে দাম বৃদ্ধির অন্যতম কারন হল দূর্লভ ইতালিয়ান ফাংগাশ “হোয়াইট ট্রাফেল”।বিশেষ এই ব্যাগেলটি খাবার জন্য আপনাকে ১০০০ ডলার খরচ করতে হবে।

file-page2

৮-জিলিয়্যন ডলার লবস্টার ফ্রিতাত্তা (৮০,০০০/-)
হোটেল ল্যে পারকার মেরিডিয়েন,নিউ ইয়র্ক এর নরমা রেষ্টুরেন্টের তৈরি এই ওমলেটটির জন্য আপনাকে গুনতে হবে পাক্কা ১০০০ ডলার।ওমলেটটি তৈরি হয়েছে ৬ টি ডিম,লবস্টার এবং ১০ আউন্স স্যেভরুগা ক্যেভিয়ার দিয়ে। স্যেভরুগা ক্যেভিয়ারের জন্যই দামটা এত বেশী।এই আইটেমটির ছোট ভার্সনটির দাম ১০০ ডলার পড়বে এবং মাত্র ১ আউন্স স্যেভরুগা ক্যেভিয়ার থাকবে।বছরে মাত্র ১২ টি অর্ডার নেয়া হয় ফুল ভার্সনের আর ছোটটির ৫০ টি।

৭-ওয়াগ্যু রিবআই স্টেক,ক্রাফটস্টেক, নিউ ইয়র্ক (২,২৪,০০০/-)
জাপানের কোবে শহরের বিখ্যাত ওয়াগ্যু জাতের গরুর মাংশ বিশ্বের অন্যতম দামী। ওয়াগ্যু বিফ ওমেগা-৩,ওমেগা-৬ ফ্যাটি এসিড সম্বৃদ্ধ আর এতে আছে গ্রহনযোগ্য মাত্রার মোনোস্যাচুরেটেড ও স্যাচুরেটেড ফ্যাট। ওয়াগ্যু জাতের গরু বিশেষ ভাবে লালন পালন করা হয় এবং তাদেরকে বিয়ার ও অন্যান্য পুষ্টিকর খাদ্যশষ্য খাওয়ানো হয়।এছাড়াও নিয়মীত ব্যাম্বু ম্যাসাজ করতে হয় গরু গুলোকে। নিউ ইয়র্কের নামকরা স্টেক হাউজ “ক্রাফটস্টেক”-এর একটি ফুল সাইজ “ওয়াগ্যু রিবআই স্টেক”-এর দাম পড়বে বাংলাদেশী টাকায় ২,২৪,০০০/-।বর্তমানে “ক্রাফটস্টেক” মালিকানা পরিবর্তিত হয়েছে এবং রেষ্টুরেন্টির নতুন নাম ক্যলিচিও এ্যান্ড সন্স।

file-page3

৬-সামুন্দারী খাজানা ক্বারী-বোম্বে ব্র্যাসিয়্যে (২,৫৬,০০০/-)
বিশ্বের অন্যতম দামী ক্বারী বোম্বে ব্র্যাসিয়্যের “সামুন্দারী খাজানা ক্বারী”।ডেভন ক্রাব,হোয়াইট ট্রাফে্‌ল,গোল্ড কোটেড স্কটিশ লবস্টার,৪টি আভালন,৪টি কোয়েল এগ আর দামী ব্যেলুগা ক্যেভিয়ার দিয়ে তৈরী মিক্সড সী ফুড প্লেটারটির দাম পড়বে ২,৫৬,০০০ টাকার সমমান ৩২০০ ডলার!

৫-শেফ ডমিনিকো ক্রোল্লার “পিৎজা রয়্যেল ০০৭” (৩,৩৬০০০/-)
একটি পিৎজার দাম ৪২০০ ডলার!অবাক করার মত বিষয় বৈকী!অসাধারন এই “পিৎজা রয়্যেল ০০৭” তৈরী করেন সুবিখ্যাত স্কটিশ শেফ ডমিনিকো ক্রোল্লা।আসুন জেনে নিই দামী এই পিৎজাটি কি কি উপকরন দিয়ে তৈরী।১২ ইঞ্চি পিৎজাটি তৈরী করতে ব্যবহৃত হয়েছে কনিয়াকে ম্যারিনেট করা লবস্টার,শ্যাম্পেনে ডোবানো ক্যেভিয়ার,টমেটো সস্,স্কটিশ স্মোকড স্যাম্‌ন,মাশরুম,ভেনিস্‌ন ম্যেডলিয়ন,ভিনটেজ বালসামিক ভিনেগার আর সবার উপরে ছিটিয়ে দেয়া হয় ২৪ ক্যারেট গোল্ড ফ্লেকস্!বুঝলেন তো দামটা কেন আকাশছোঁয়া?

file-page4

 ৪-দানসুকে ব্ল্যাক ওয়াটার মেলন্ (৪,৮৮,০০০/-)
ব্ল্যাক ওয়াটার মেলন বা কালো তরমুজ এমনিতেই বিরল।যদি জাপানের দানসুকে জাতের হয় তাহলে তো কথাই নেই!দানসুকে শুধুমাত্র চাষ করা হয় জাপানের হোক্কাইডো দ্বীপে।১৭ পাউন্ডের দানসুকে ব্ল্যাক ওয়াটার মেলনের দাম পড়বে ৬১০০ ডলার!

৩-ইউবারু কিং মেলন (১৮,২৯,৭৬০/-)
বুঝুন ঠ্যালা!তরমুজের দাম ১৮ লাখ টাকা?কমলার স্বাদের বিরল প্রজাতির ইউবারু কিং মেলন ২০০৮ সালে এক নিলামে প্রায় ২৩০০০ ডলারে কিনে নেন একজন রেষ্টুরেন্ট ব্যবসায়ী।

file-page5

২-আলমাস্ ক্যেভিয়ার-ইরান (২০,০০,০০০/-)
ক্যেভিয়ার এমনিতেই খুব দামী খাদ্য উপকরন আর তা যদি হয় ইরানের আলমাস ক্যেভিয়ার,তাহলেতো কথাই নেই!আপনি এই ক্যেভিয়ার শুধুমাত্র পাবেন লন্ডনের পিকাডেলি এলাকার “কেভিয়ার হাউস এ্যান্ড প্রুনিয়ে” নামের অভিজাত দোকানটিতে।প্রতি কেজি ক্যেভিয়ার বিক্রী হয় ২৫০০০ ডলারে এবং টিনের বক্সটি ২৪ ক্যারেট সোনায় মোড়ানো!
১-ইতালিয়ান হোয়াইট আলবা ট্রাফেল (১,২৮,৩২৪৮০/-)
ইতালিয়ান হোয়াইট আলবা জাতের ট্রাফেল সবচেয়ে বিরল প্রজাতির ও দামী ট্রাফেল।দেড় কেজী ওজনের অত্যন্ত বিরল আলবা ট্রাফেলটি কেনেন হংকংয়ের একজন ধণাধ্য ব্যবসায়ী দম্পতি।তারা ট্রাফেলটি কেনার জন্য ব্যায় করেন ১৬০০০০ ডলার।