ক্যাটেগরিঃ ব্লগালোচনা

banner

গত ১৪ই ফেব্রুয়ারি বিডিনিউজ ব্লগের চার বছর পূর্তি উপলক্ষে আমরা ক’জন নতুন-পুরাতন ব্লগের সদস্য আমন্ত্রণ পেয়ে সমবেত হয়েছিলাম বিডিনিউজের অফিসে। আমার আরেকটি জায়গায় কাজ ছিল বিধায় সেখানে পৌছাতে একটু দেরি হয়ে গিয়েছিল। আমার সাথে ছিল ইউজারহাবের কো-ফাউন্ডার এবং হেড অফ ডিজাইন ও চীফ এক্সপেরিয়েন্স অফিসার ওয়াহিদ বিন আহসান।

আমরা সেখানে সবাই সবার মতামত, সম্ভাবনা, অভিজ্ঞতা নিয়ে অনেক চমৎকার কিছু কথা শেয়ার করি। নাগরিক সাংবিদিকতা কতভাবে আমাদের নাগরিক জীবনকে আরও বিচিত্র স্বাদ এনে দিতে পারে, মুল্য যোগ করতে পারে এবং এক ত্রিমাতৃক সম্ভাবনার দিক উন্মোচন করতে পারে এটা নিয়েও অনেক কিছু উঠে এসেছে। শুধু এতটুকুই নয়, জিঞ্জার চা আর বিডি নিউজ ব্লগের বিখ্যাত মুড়ি মাখাটা উপভোগ করি। সবার শেষে কেক কাটা আর ফটো সেশন টাও ছিল অনেক আনন্দের। সব মিলিয়ে অনেকগুলো নতুন মানুষের সাথে অত্যন্ত চমৎকার একটি বিকেল কেটেছে।

আমার আরও কিছু ভালো লাগার কথা আপনাদের সাথে না বল্লেই না। তাই শেয়ার করে আপনাদের মাঝেও আনন্দটা ভাগ করে দিতে চাই।
আমাদের প্রিয় আইরিন আপুর সুন্দর উপস্থাপনা আর মানুষকে সহজে আপন করে নেবার মতো একটা অসাধারন গুণ ছাড়াও আরও বড় একটি গুণ আমাকে অভিভূত করেছে। তারা ক’জন মিলে এই বইমেলায় প্রকাশ করতে যাচ্ছে মুক্তিযুদ্ধের উপর একটি কাব্যগ্রন্থ, যেটা ব্রেইল পদ্ধতিতে করা এবং দৃষ্টি প্রতিবন্ধিদের মাঝে বিনা মুল্যে বিতরন করা হবে। দেশের এই সঙ্কটপুর্ন অবস্থায় আমরা জানি আমরা অনেক সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি, কিন্তু দেশের ছোট ছোট এসব দেশপ্রেমী পদক্ষেপ সত্যি আমাদের নতুন আশার আলো জাগায়, একটি সুখী সমৃদ্ধশালী দেশের স্বপ্ন দেখায়। ধন্যবাদ আইরিন আপু, নুরুন্নাহার শিরীন আপা এবং যারা যারা এর সাথে কাজ করেছেন।

নুরুন্নাহার শিরীন আপা। স্যালুট আপনাকে! আমরা এখনো নারীর অগ্রদূত বেগম রোকেয়ার কথা বলি। কিন্তু আমাদের মাঝে শিরীন আপার মতো আরও অনেক আছেন যারা নিভৃতে আড়ালে অনেক অনুপ্রেরনার আঁধার। যারা আমাদের এই প্রজন্ম এবং আগামী প্রজন্মকে হাত ধরে সুসংস্কৃতীর মাধ্যমে দেশপ্রেম এর সাথে চলার জন্য অনন্য পথিকৃত হিসেবে পথের নির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছেন। আপার জ্ঞানের আলো ছড়িয়ে দেবার এই অসাধারণ দৈবিক ক্ষমতা বইএর পাতাকে ছাড়িয়ে বর্তমান তথ্য প্রজুক্তির সব লিমিটেশন অতিক্রম করে ইন্টারনেট এর মাধ্যমেও সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে। যে দেশে ঘরে ঘরে এখনো মা বোনেদের ইন্টারনেট ব্যাবহারকারিদের সংখ্যাকে হিন্দি সিরিয়ালের আসক্তির সংখ্যার চেয়ে টপকাতে পারেনি, সে দেশে নুরুন্নাহার শিরীন আপার মতো মানুষের সামনে সত্যি আমার মাথাটা শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় নত হয়ে গিয়েছিল। আপনার কাছ থেকে আমি রিচার্জ হয়ে আরও কুড়ি বছর কর্মোদ্যমের অনুপ্রেরণা পেলাম। আপনি আমাদের সবার অনুপ্রেরনার উৎস হয়ে আমাদের সাথে আরও শত বছর আশীর্বাদ হয়ে থাকুন!

ধন্যবাদ বিডিনিউজ ব্লগকে – আমাদেরকে ক্রেস্ট, উপহার আর ফুল দিয়ে অনুপ্রানিত করার জন্য। নাগরিক সাংবাদিকতার এই পথচলা আমাদের নাগরিক জীবনে আলোর দিশারী হয়ে উঠুক।
photo.php 03

 

ফটো ক্রেডিট – নুরুন্নাহার শিরীন আপা, জুবায়ের