ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ


হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, ইতিহাসের রাখাল রাজা, বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ যার ডাকে মিলে ছিল সেই মহাপুরুষ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা বর্তমান বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সাহসী পদক্ষেপ কে স্বাগতম জানাই। আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি বঙ্গবন্ধু কন্যার স্বপ্ন যেন বাস্তবে রূপ ধারণ করে।

পদ্মা সেতু বর্তমান সময়ের খুব একটি আলোচিত অধ্যায়। কী হয়েছিল আর কী হয় নাই সেই চিন্তায় আর ঘুম নষ্ট করতে চাই না। কথা হলো আমরা চাই পদ্মা সেতু নির্মাণ করা হোক। আর কিছু না।আমার খুব গর্ব বোধ করে বলতে ইচ্ছা হচ্ছে, পদ্মা সেতু নিয়ে প্রধানমন্ত্রী যে সাহসী ভূমিকা পালন করার লক্ষে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছেন। এটা নি:সন্দেহে একজন সাহসী নেত্রীত্বের ইচ্ছার প্রতিফলন। জয় হোক প্রধানমন্ত্রীর।

বলি কিছু বাটপারদের কথা, হটাৎ দেশ প্রেম যাদের উতলে করে উঠেছে। প্রাসঙ্গিক ভাবে আমার লজ্জা করে চোরের মুখে ধর্মের গীত শুনে। মহাজাগতিক বিশ্ব ব্যাংক প্রেমী মূর্খ আর দানবের দল, মনে পড়ে না তোদের কী করতে কী করেছিলি? এখনো করে যাচ্ছিস। ১৯৮১ সালে রেশনের চালের ভাত খেয়ে, ছোট্ট ছোট্ট জামা পড়ে, এক কাপড়ে বাংলাদেশের মস্তিস্ক বিহীন গণ্ডমূর্খ দের কাছে এক সামরিক শাসকের গল্প পরিবেশন করে ১৯৯১ সালে ক্ষমতায় এসেছিলি। আজকে ২০১২ সালে আর এক কাপড় নেই, হয়েছে চল্লিশ সুটকেস কাপড়, দামী গহনা আর গ্যারেজে তিন কোটি টাকার নিশান পেট্রোল কয়েকটা। কোথায় পেলি এত টাকা ? তোদের বাবা মায়েরা কী ঢাকা শহরে টাকার খেত বুনে ছিল ?

সেই থেকে নিজের পরিবারের তো বটে, আশেপাশের কামলা চামলার পরিবার কে ধন সম্পদে পরিপূর্ণ করেছিলি। শুধু তাই নয় বাড়ির চাকর ফালু কে করে দিয়েছিস আরটিভি ও এনটিভি আরও আছে বহু প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান এর পদবী। চলাফেরা করার জন্য কিনে দিয়েছিস বিলাস বহুল হ্যামার। জানতে চাই রে মুর্খের দল ফালুর বাপ ঢাকায় কত খাদা জমি রেখে গিয়েছিল ? জানি নির্লজ্জ বেহাইয়ারদের মত বলে দিবি বাকশালী ষড়যন্ত্র ছাড়া আর কিছুই না।

আর আজকে মহা বুলি মেরে যাচ্ছিস, পদ্মা সেতু চাই না আগে মানসম্মান বাছান। হায় রে আমার মানসম্মান উয়ালা। কত তোদের মান সম্মান। যেন শুনলে আর চোখ খুলে রাখতে পারি না।

বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হলো বাপের বেটি তা না হলে জনগণ কে ফোন নাম্বার ও ইমেইল এর ঠিকানা দিয়ে বলতো না আপনারা আমাকে জানান আমার পরিবারের কেউ কোনও দুর্নীতির সাথে জড়িত কী না। এই আহববানের মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হলো বঙ্গবন্ধু কন্যা এই দেশের সাহসী নারী।

আর
রামছাগলদের জ্বালা উঠে গেছে। এখন আঝাইরা প্যাচাল শুরু করে দিয়েছে। আরে বেটা রা ইচ্ছা হলে ফোন কর না হলে চুপ চাপ থাক। কিন্তু না এইখানেও তোদের সমস্যা প্রধানমন্ত্রী টেলিটক নাম্বার দিল না কেন ? শুনেছি বলদ আন্ধা হয় বয়সকালে কিন্তু বাঙ্গলাদেশের বাংলা বলদের দল যে বয়স হওয়ার আগে আন্ধা হয়ে গেল। এই দুক্ষ রাখি কই ? আবার বলে যাচ্ছিস গণতন্ত্রের কথা। বগলের নিচে যুদ্ধাপরাধী শুয়োরের দল কে রেখে শুনিয়ে যাচ্ছিস দেশ প্রেম এর কথা। বলি তোরা কী সকল বাংলাদেশীদের ছাগল মনে করা শুরু করে দিয়েছিস নাকি ?

শেষ কথা আমরা পদ্মা সেতু চাই, প্রধানমন্ত্রী বলেছে পদ্মাসেতু হবে। আমরা তার কথা মত অপেক্ষা করব। যদি না পারে তাহলে আগামী নির্বাচনে তার জবাব ব্যালট পেপারের মাধ্যমে দিব। তারপর ও তোদের আল্লাহর দোহাই দিয়ে বলছি চুপ থাক।