ক্যাটেগরিঃ প্রকৃতি-পরিবেশ

 

আমাদের নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদী মরণ ব্যাধিতে আক্রান্ত৷ সঠিক ঔষধ দেওয়ার মত কোন চিকিৎসক নেই৷ চিকিৎসক’রাই তো ঘুষের ঔষধসেবন করতেছে৷এখন শীতলক্ষ্যাকে বাঁচাবে কে?

 

বিষমাখা তীক্ষ্ণ তীরের আঘাতে আজ যেমন শীতলক্ষ্মার মরণ,তার চেয়েও বেশী মরণ আমাদের নারায়ণগঞ্জবাসির৷এইসব খাল দিয়ে প্রতিদিন কোটি কোটি লিটার দূষিত পানি শীতলক্ষ্মার বুকে বিষমাখা তীর হয়ে আঘাত হানছে৷

 

এই খালটি নারায়ণগঞ্জ গোদনাইল এলাকার আজিম মার্কেট সংলগ্ন বহু প্রাচীন খাল৷এই খাল দিয়ে আগেকার সময় নৌকা দিয়ে মানুষ ও পণ্য যেত ঢাকায়৷ আজ সেই খাল যেন পড়ে থাকা মৃত মানুষের কঙ্কাল৷আর এই দিয়ে পানি যাচ্ছে?না পানি যাচ্ছে না!যেন আঘাত হানতে যাচ্ছে দূষিত পানির বিষমাখা তীক্ষ্ণ তীর খানা৷

 

এই চিত্র খানা আমাদের সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন গোদনাইল চিত্তরঞ্জন গুদারা ঘাঁট৷ আগে নদীর পাড়ে দেখা যেত সবজির বাহার সাথে থাকতো ধানের চাষ৷ এখন শুধই স্মৃতি৷

এই চিত্র খানা আমাদের সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন গোদনাইল এলাকার চিত্তরঞ্জন গুদারা ঘাঁট৷ওপাড়ে বন্দর থানাধীন লক্ষণখোলা এলাকা৷নদীর দুইপাড়ে ছিল সবজি ও ধান ক্ষেত৷ বিষাক্ত পানির ছোঁবলে আজ এখনো কোন ফসলই হয় না৷

 

এই চিত্রখানা চিত্তরঞ্জন গুদারা ঘাঁট৷ ওপাড়ে বন্দর থানাধীন লক্ষণখোলা৷এখনো আগে গুদারা ঘাঁটের দুইধারে দেখা যেত ধান সহ সবজির চাষ,এখন সেই চিত্র শুধুই কেবল স্মৃতি৷