ক্যাটেগরিঃ ব্লগালোচনা

 

প্রিয় ব্লগ ডট বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের নাগরিক সাংবাদিক ব্লগার/লেখকবৃন্দ কেমন আছেন? আশা করি আপনারা এই পবিত্র মাহে রমজান মাসে সবাই একপ্রকার ভালো আছেন । সবাই ভালো থাকেন, এটাই আমার কামনা ও প্রার্থনা।

ব্লগে আমার নিবন্ধিত হওয়ার ব্যাপারে কিছু কথা বলে নেই, কীভাবে আমার এই ব্লগে আত্মপ্রকাশ হয়েছিল। প্রিয় সহ-ব্লগার ভাই ও বোনেরা, আমি ব্লগ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমে নিবন্ধিত হয়েছি ৩ মার্চ ২০১৫ সালে। তখন থেকে আমার দৃষ্টি শুধু ব্লগের জন্মলগ্ন হতে পোস্টগুলোর ওপর। নিবন্ধিত হওয়ার আগে বিডিনিউজ ব্লগে প্রবেশ করে ব্লগারদের লেখাগুলো পড়তাম, আর ভাবতাম এতো সুন্দর করে সাজিয়ে   যারা লেখেন, সত্যি তারাঅসাধারণ ব্যক্তি । আসলেও ঠিক যে, যারা লেখক তারা অসাধারণ মনমানসিকতার অধিকারী। এসব ভাবতে ভাবতে একদিন আমি নিজেই ব্লগে রেজিস্ট্রেশন করে ফেলি। আমার প্রথম লেখাটি ছিল ‘আমিও মানুষ’। লেখা লিখে ব্লগে প্রকাশের জন্য জমা দিয়ে বেশ কিছুদিন আর ব্লগে প্রবেশ করিনি। প্রবেশ করি নাই একটি কারণে, কারণটা হলো ব্লগে লেখার যন্ত্রের অভাবে। যেই যন্ত্রটা দিয়ে ব্লগে লিখেছিলাম, সেটা ছিল নোকিয়া সি-থ্রি মোবাইল। মোবাইল ফোনটা ছিল আমার ছেলের রেখে যাওয়া স্মৃতি। সেই স্মৃতির সম্পদ দিয়েই বিডিনিউজ ব্লগে লিখেছিলাম ‘আমিও মানুষ’ শিরোনামের লেখাটি । লেখাটি লিখেছিলাম, ইংরেজি বর্ণ দিয়ে, শিরোনামটাও দিয়েছিলাম ইংরেজিতে।

লেখাটি লেখার কিছুদিন পর ব্লগ টিম লেখার শিরোনাম বাংলায় লেখার জন্য অনুরোধ করে। কিন্তু হায়! আমার মোবাইলে তো বাংলা লেখা যায়না । তাহলে উপায়? তখনকার সময় আমার আর্থিক অবস্থাও বেশি ভালো ছিলনা। কী করি? শুধুই ভাবছি। যাই হোক, খুব কষ্ট করে কিছু টাকা মাসিক সুদে কর্জ করে একটা সিস্ফোনি মোবাইল কিনে ব্লগে লগইন করি। তারপর আমার ফেলে রাখা লেখাটির শিরোনাম বাংলায় করে দেই ‘আমিও মানুষ’। এরপর প্রায় পাঁচ ছয়মাস আর ব্লগে প্রবেশ করিনি। এরমধ্যে লেখা প্রকাশ পেল, লেখায় মন্তব্যও দিয়েছে কয়েকজনে, কিন্তু আমার খবর নেই। আমি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল পেয়ে বন্ধুবান্ধবদের মাঝেই সময় কাটাই, ব্লগে আর প্রবেশ করিনা, মন্তব্যের প্রত্যুত্তর দেবে কে? একদিন ব্লগে প্রবেশ করে দেখি কাজী শহীদ শওকত দাদাসহ আরো অনেকের মন্তব্যে আমার লেখাটা সার্থক হয়ে আছে। ওইসব মন্তব্যের প্রত্যুত্তর দিতে গিয়েই আজ অবধি আমার লেখা বিরামহীন ভাবে চলছে, এ পর্যন্ত আমার ভুল বানানে লেখার সংখ্যা দুশো ছুঁই ছুঁই করছে!