ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন নারায়ণগঞ্জ টু চিটাগাং রোডের মাঝে পাঠানটুলি বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন রাস্তায় একটি কভার্ডভ্যানের  সঙ্গে একটি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত ও একজন আহতের ঘটনায় এলাকার ট্রাফিক ব্যবস্থা নিয়ে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে স্থানীয়দের মধ্যে।


কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া নিহত বাবুল মিয়ার রিকশা

রোববার সকাল ১১টায় এই দুর্ঘটনায় কভার্ডভ্যানের ধাক্কায় চলন্ত অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়।  দু’জন যাত্রীসহ রিকশাচালক ছিটকে পড়েন রাস্তার উপর। রাস্তায় পড়ে থাকা তিনজনের উপর উঠে যায় কভার্ডভ্যান।

এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান তল্লা আইসক্রিম ফ্যাক্টরি এলাকার বাসিন্দা রিকশাচালক বাবুল মিয়া ।

আহত দু্ই যাত্রী রকি ও সবুজকে উপস্থিত জনতা ও এলাকাবাসীর সহায়তায় নিকটস্থ নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে নেওয়া হয়।  হাসপাতালে নেওয়া আহত দুইজনের মধ্যে একজন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যান।

পাঠানটুলি আইলপাড়া এলাকার বাসিন্দা  রকি ও সবুজ নিকটস্থ ইব্রাহীম নিট গার্মেন্টসের শ্রমিক।

উপস্থিত ক্ষুব্ধ জনতা কভার্ডভ্যানটি আটকে ফেলে। তবে কভার্ডভ্যানটির ড্রাইভার ও হেলপার পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।


বিক্ষুব্ধ জনতার হাতে ধরা পড়া কভার্ডভ্যান

 

উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে  বন্ধ হয়ে যায় যান চলাচল। পরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণে আনে। জনতার আটক করা কাভার্ডভ্যানটিও  থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

এই সড়ক দুর্ঘটনার পর এলাকাবাসীর অনেকেরই অভিযোগ, নিরাপদ সড়কের জন্য নারায়ণগঞ্জ টু চিটাগাং রোডের প্রতিটা মোড়ে ট্রাফিক পুলিশ নিয়োগ দেওয়া না হলে বন্ধ হবে না  এমন প্রাণঘাতি সড়ক দুর্ঘটনা।