ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

এই দেশে যারা ভাল মানুষ যাদের মনে মিনিমাম সততা আছে তারা বিএনপি-জামাতের রাজনীতি করতে পারে না। একটু খেয়াল করলে বুঝা যায় বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও উনার আদর্শে যারা চলাফেরা করে তাদের কথা বার্তা যেন কেমন। নতুন প্রজন্মের যারা আছেন তাদের কে অনুরোধ করে বলতে চাই বিএনপি-জামাতের রাজনীতি কে বয়কট করুন। বিএনপির আদর্শ কী সেটা আমি বলতে চাই না তবে এইটুকু বলতে পারি বাংলাদেশের রাজনীতিতে হিংসা, বিদ্বেষ ও হানাহানি সৃষ্টি করার জন্য বিএনপি-জামাত মূলত দ্বায়ী। পর্যালোচনা করলে দেখা যায় যে, ৭৫ এর পরবর্তী বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুর পড়ে নব্য গণতন্ত্রের সূচনা হয় ১৯৯১ সালে ওই সময় বাংলাদেশে সাধারণ নির্বাচনের মাধ্যমে বিএনপি প্রথম ক্ষমতায় আসে। ওই সময় থেকে খালেদা জিয়ার প্রকাশ্য চিন্তা ভাবনায় রাজনীতিতে প্রতি হিংসার বীজ রোপণ হয়। একটু পিছনে ঘাটলে দেখা যাবে যে ১৯৯৬ সালের ১৫ ই ফেব্রুয়ারী তে তত্কালীন বিরোধী দলের মতামত কে উপেক্ষা করে একক ভাবে নির্বাচন দিতে হল বিএনপিকে ? কিন্তু সফল হতে পারেনি।

তারপর ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসে সারাদেশে আওয়ামী লীগ এর নেতা কর্মীদের উপর নির্যাতন চালানো হল ? ২০০৬ সালে কেন কেয়ার টেকার নাটক করে প্রেসিডেন্ট ইয়াজউদ্দিন কে কেয়ার টেকার প্রধান করা হল ? এইসব প্রশ্নের উত্তর কী খালেদা জিয়া দিতে পারবেন ? আমি মনে করি বাংলাদেশের রাজনীতিতে নষ্ট বীজ এর রূপণ খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে হয়েছে।

আজকে জামায়াত ইসলামীর এত সাহস কোথা থেকে এলো ?? এই বিএনপি এর জন্য। বিএনপি যদি ২০০১ সালে জামাত কে লাল বাত্তি ওয়ালা গাড়ি না দিতো তাহলে সিরিজ বোমা হতো না, বাংলা ভাই হতো না, অপারেশন ক্লিনহার্ট এর দরকার হতো না, ১/১১ হতো না, ফকরুদ্দিন সরকার এর পয়দা হতো না, শেখ হাসিনা ও খালেদা জিয়া কে জেলে যেতে হতো না।

এখানে শেষ হলে হয়তো ভাল হতো তা হয়নি, খালেদা জিয়া সেই পুরানো কাসুন্দি কে আবার নতুন বোতলে ডেলে আবার আমাদের কে খেতে দিচ্ছে। আমাদের কে শুনাচ্ছে নতুন বাণী, জামাতের নেতাদের মুক্তি দিতে হবে। জানতে চাই খালেদা জিয়া ও বিএনপি ওয়ালাদের কাছে আমরা কী এতো দোষ করলাম আপনাদের সিদ্ধান্তের কারণে আমাদের সারা জীবন কেন পাপের বোঝা বয়ে বেড়াতে হবে ???