ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

যদি ও নির্বাচনের আর ও ২ বছর বাকি আছে। গত দুই দিন ধরে ব্লগ দেখছি, আজকে একটা পত্রিকা দেখলাম হেড লাইন করল মহাজোট আগাম ভোটের হিসাব নিকাশ। যাই হোক, আপাতত দৃষ্টিতে মনে হচ্ছে আওয়ামীলীগ এখন দেশের জাতীয় শত্রু তে পরিণত হয়েছে। আওয়ামীলীগ এর অপরাধ কী ? কিছু উগ্রপন্থী বিপদগামী মানুষের বিপক্ষে অবস্থান নেওয়া। আমার খুব কষ্ট লাগে, যখন দেখি কিছু বাঙালি ভাত খায় বাংলাদেশে গুণ গায় পাকিস্তানের তাদের মুখে যখন শুনি বাংলাদেশের গণতন্ত্রের এক সুবিশাল গণতান্ত্রিক লেকচার। আওয়ামীলীগ এর হাতে দেশ নিরাপদ নয়। আওয়ামীলীগ ভারতের দালাল। আওয়ামীলীগ বিরোধী দল নিধনে নেমেছে। আওয়ামীলীগ এর উপর আল্লাহর গজব পড়বে। আওয়ামীলীগ এর কোনও বিবেক নেই।

একটু পিছনে যদি ফিরে তাকাই, বিএনপি সরকারের কিছু আমলনামা উল্লেখযোগ্য, ২০০১ সালের নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা যা কিছু অংশে ১৯৭১ সালের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নির্যাতন কে হার মানিয়েছিল, আহসান উল্লাহ মাস্টার এমপি, মমতাজউদ্দীন আহম্মেদ(সাবেক এমপি) , শাহ এস এম কিবরিয়া এমপি, দের মত জাতীয় নেতাদের নির্মম হত্যা কান্ড, শেখ হাসিনার জনসভায়(শেখ হাসিনা কে হত্যা করার জন্য গ্রেনেট হামলা) এমন আর ও অসংখ নির্মম কাহিনী যা বলতে গেলে রাত শেষ হয়ে যাবে। তবু বলা শেষ হবে না। তাই বলে এটা বলতে চাই না বিএনপি যা করেছে আওয়ামীলীগ কে তা করতে হবে। অনেকে বলতে পারেন বিএনপি এইগুলো করেছে বলে জনগণ বিএনপি কে প্রত্তাক্ক্ষান করেছে, আওয়ামীলীগ কে ভোট দিয়েছে তাই বলে…………..। না মোটেই না।

মেনে নিতে কষ্ট হয় আজকে যখন খালেদা জিয়া গণতন্ত্রের দেবী সাজতে চায়, জামাত ইসলাম কে পূজা করে বলে ১৯৭১ মুক্তিযুদ্ধে এর সময় আওয়ামীলীগ নেতার এপার উপার করেছে আসল মুক্তিযুদ্ধে করেছিল বিএনপি র নেতারা। অবাক হয়ে ভাবি, যখন শুনি বিএনপি র শাসন আমলে জনগণ খুব শান্তিতে ছিল। এই দেশে চাউল এর দাম ২৫ টাকার নিচে ছিল । দেশে কোনও দুর্নীতি হয়নি, আরও অনেক কিছু। পাকিস্তানী ফেলে যাওয়া বীজ (শিবির) দের মুখে গণতন্ত্রের জন্য আধুনিক দেশ প্রেম। ভাবতে অবাক লাগে খালেদা জিয়া কেন জামাত ছাড়া চলতে পারে না।

জামাত এর মত কুলাঙ্গার দের জন্য খালেদা জিয়া যখন বাংলাদেশ কে কার্যত দুই ভাগে ভিবক্ত করে ফেলে তখন ভাবতে ঘ্রীনা করে উনি একজন মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী। তখন এটা খুব সহজে মেনে নিতে হয়, ১৯৭১ এ এই খালেদা জিয়া পাকিস্তানী সেনা বাহিনীর সাথে স্ব ইচ্ছায় ছিলেন।

বিএনপি কে ক্ষমতায় যেতে হবে সেটা যে করে হোক এটা খুব নির্মম সত্য দেশ কোথায় গেল, কে মরলো, কে বাচল, তাতে কিচ্ছু যায় আসে না। কিন্তু আওয়ামীলীগ কে ও মনে রাখতে হবে এই দেশ এর ক্রান্তি লগ্নে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব আমাদের মানচিত্র উপহার দিয়েছিলেন। তেমনি এই মানচিত্র রক্ষা করার দায়িত্ত শেখ হাসিনার।