ক্যাটেগরিঃ কৃষি

 

’রক্ত গোটা’ ফলের এই নাম পাহাড়ে শোনা যায়। প্রকৃতই এই ফলের সাধারণ প্রচলিত কিংবা বৈজ্ঞানিক নাম আমার জানা নেই। ফলের খোসা ছাড়িয়ে হাতে  নিলে হাত তাজা রক্তে ভরে যায়।আসল নয়। ফলের রস মানুষের তাজা রক্তের মতো । শোনা যায় রাঙামাটির পাহাড়ে এই ফলের  চাষ হয়। তবে চিটাগাং বাজারেও এই ফল গুলো ডায়াবেটিক ফল হিসেবে বেশি দামে বিক্রি করছে।

IMG_20160407_204244

 

IMG_20160407_203440

 

বিশ্বের সকল বিজ্ঞানীদের চোখ  আর দেখার দৃষ্টি  আলাদা থাকে। পৃথিবী এবং মানুষকে বিচার করে অন্য দৃষ্টি ভঙ্গি নিয়ে। তারা প্রতিটি জিনিসকে খুব সূক্ষ্মভাবে বিশ্লেষণ করে। তাদের আশে পাশে যারা থাকে তাদের সবাইকে বড় ভালোবেসে গিনিপিগ বানায়। তেমন একজন মানুষের সাথে আমার যাপিত জীবন। সম্পর্কের শুরু থেকেই তিনি আমাকে নিয়ে পাহাড়ে ঘুরে বেড়াতেন আর প্রকৃতির বিচিত্রতা উপভোগ করতেন। সংগ্রহ করতেন নানা বিচিত্র গাছ কিংবা পোকা মাকড়।  আবিস্কারের অন্যতম ক্ষেত্র নাকি প্রকৃতি। সেদিন এই অজানা ফলগুলো এনে আমাকেই খেতে দিলেন। ভালোবেসে বিষ খেলেও নাকি হজম হয়ে যায়। আমি খোসা ছাড়িয়ে লেবু, লবণ দিয়ে মিক্সড করলাম।

 

IMG_20160407_202212

টক আর হালকা মিষ্টির সংমিশ্রণে অদ্ভুত স্বাদ। কিন্তু মজা করে খেতে খেতে সামনে বসা মানুষটাকে দেখে ভয় পেয়ে গেলাম। তার দুই ঠোট বেয়ে রক্ত ঝরছে। আমার নিজের হাতের দিকে তাকিয়ে দেখি রক্তে একাকার। মনে হল কাউকে কামড় দিয়ে রক্ত শুষে খেয়েছে। খুব ভয় পেলাম। যত যাই হোক বিজ্ঞানীর সাথে বসবাস। তার কিছুক্ষণ পর তিনি আমাকে বুঝালেন ফলের রস সম্পর্কে। গুগল ঘেঁটে এর বৈজ্ঞানিক নাম পাওয়া গেল না। রহস্যময় এই ফলের পরিচয় অনেক রহস্য তৈরী করলো। আশা করা যায় এই ফলটি নিয়ে অনেক গবেষনা হবে। কিংবা কোথাও হচেছ।বাজারে হাজারো ফলের মাঝে ’রক্ত গোটা’ নিজস্ব পরিচয় নিয়ে মানুষের রুচিতে জায়গা করে নিবে।

উল্লেখ এই ফল টির সাধারন গবেষনায় জানা গেছে এই ফলে বিষাক্ত লেড বা শিষার পরিমান অনেক। যা মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর। অথচ বাজারে ডায়াবেটিক ফল হিসেবে বিক্রি হচ্ছে।